ঢাকা, রবিবার, ২০ মে ২০১৮, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

ঝিনাইদহে দুই কোটি টাকার ফুল বিক্রি

http://www.dhakatimes24.com/2018/02/13/69205/ঝিনাইদহে-দুই-কোটি-টাকার-ফুল-বিক্রি
BYঝিনাইদহ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস

ভালোবাসা প্রকাশের প্রতীক মূল্যবান ফুলটি অগণিত তরুণ তরুণী, যুবক-যুবতীসহ সকল বয়সের মানুষের হাতে তুলে দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন ঝিনাইদহের ফুলনগরী হিসেবে খ্যাত কালীগঞ্জের ফুল চাষিরা।

এবার ভালবাসা দিবস ও বসন্ত উৎসবে ঝিনাইদহ থেকে প্রায় ২ কোটি কোটি টাকার ফুল দেশের বিভিন্ন স্থানে রপ্তানি করা হয়েছে বলে ফুল চাষের সাথে জড়িত কৃষক ও স্থানীয় কৃষি অফিস জানিয়েছে।

আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে আরো ১ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হবে।

প্রতিবছর বিভিন্ন জাতীয় দিবস ও ভালবাসা দিবসের মতো দিনগুলোতে ফুলের অতিরিক্ত চাহিদা থাকে। আর দেশের এই চাহিদার সিংহভাগ জোগান দিয়ে থাকে এই ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের এলাকার ফুল চাষিরা।

উপজেলা কৃষি অফিসার জাহিদুল করিম জানান, ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ, কোটচাদপুর ও সদর উপজেলায় প্রায় ৫শ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন ধরনের ফুলের চাষ হয়েছে। এর মধ্যে শুধু কালীগঞ্জ উপজেলায় প্রায় ২শ হেক্টর জমিতে ফুল চাষ হয়েছে। কালীগঞ্জে গাদা ফুল ১৯২ হেক্টর, গোলাপ ১ হেক্টর, রজনীগন্ধা ৬ হেক্টর, গ্লাডিয়াস ১ হেক্টর, জারবেরা সাড়ে ৩ বিঘা, লিলিয়াম ৩ বিঘা জমিতে ফুল চাষ হয়েছে।

উপজেলা কৃষি অফিসার আরো জানিয়েছেন, কালীগঞ্জ উপজেলায় প্রায় ৩ হাজার কৃষক সরাসরি ফুল চাষের সাথে জড়িত।

তিনি জানান, ঝিনাইদহের বিভিন্ন উপজেলায় সবচেয়ে বেশি চাষ করা হয় বিভিন্ন রঙের গাদা ফুল। খরচ শেষে লাভ বেশি হওয়ায় কৃষকরা ফুল চাষে আগ্রহী হচ্ছেন। এক বিঘা জমি থেকে ৬ মাসে ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকার ফুল বিক্রি করা যায়।

তিনি বলেন, কালীগঞ্জ উপজেলার লাউতলা, বালিয়াডাঙ্গা, কোলাবাজার, তিল্লা, সিমলা, রোকনপুর, গোবরডাঙ্গা, পাতবিলা, পাইকপাড়া, তেলকুপ, গুটিয়ানী, কামালহাট, বিনোদপুর, দৌলতপুর, বারবাজার, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মধুহাটি, গান্না বাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন মাঠের পর মাঠে চাষ করা হয়েছে গাঁদা, রজনীগন্ধ্যা, গোলাপ ও গ্লাডিয়াসসহ নানা জাতের ফুল।

বসন্ত উৎসব ও ভালবাসা দিবস উপলক্ষে এক ঝুপি গাঁদা ফুল ৮০-১০০ টাকা দরে, রজনীগন্ধ বিক্রি হয়েছে ১ কেজি ১০০ টাকা ও পিস ৩/৪ টাকা আর গ্লাডিয়াস ১ পিস ৮-১০ টাকা দরে, জারবেরা বিক্রি হয়েছে ১৫ থেকে ২০ টাকা দরে বিক্রি করেছেন কৃষকরা। সোমবার বিকালে ফুল দূরপাল্লার পরিবহনের মাধ্যমে ঢাকা, বরিশাল, চট্রগ্রাম, সিলেটসহ দেশের বড় বড় শহরগুলোতে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবারও কিছু ফুল ঢাকায় পাঠানো হয়।

এলাকার বিভিন্ন স্থান থেকে আগত ফুলচাষিরা জানান, সারাবছরই তারা ফুল বিক্রি করে থাকেন। তবে প্রতিবছর বিভিন্ন দিবস ও ভালবাসা দিবস ফুলের অতিরিক্ত চাহিদা থাকে। এ সময় দাম ও থাকে ভালো।

কালীগঞ্জের জারবেরা ফুলচাষি টিপু জানান, তিনি এবার ভালবাসা ও বসন্ত দিবস উপলক্ষে প্রায় ২০ লাখ টাকার জারবেরা ফুল বিক্রি করেছেন।

বালিয়াডাঙ্গার ফুল চাষি জয়নাল হোসেন জানান, তিনি এবার ৩ লাখ টাকার গাদা ফুল বিক্রি করেছেন।

ঢাকার ফুল ব্যবসায়ী আমিনুর রহমান জানান, প্রতিদিনই উপজেলার ফুলচাষিরা ফুল নিয়ে কালীগঞ্জ মেইন বাসস্ট্যান্ডে আসে। তাদের কাছ থেকে ফুল কিনে দূরপাল্লার বাসে-ট্রাকে ফুল দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হয়।

(ঢাকাটাইমস/১৩ফেব্রুয়ারি/এলএ)