ঢাকা, বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৬

কবিরহাটে ছাত্রলীগ সভাপতিকে পিটিয়ে জখম

http://www.dhakatimes24.com/2018/02/14/69220/কবিরহাটে-ছাত্রলীগ-সভাপতিকে-পিটিয়ে-জখম
BYনোয়াখালী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস

নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা ছাত্রলীগের নব-নির্বাচিত সভাপতি জহিরুল ইসলাম রিয়াদ’এর ওপর হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় তার মা মনোজা খাতুনও আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে বাটাইয়া ইউনিয়নের কাছারিরহাট-ওটারহাট সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহত ছাত্রলীগ সভাপতি জহিরুল ইসলাম রিয়াদ জানান, সন্ধ্যায় তিনি তার মা’কে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে বাটাইয়া ইউনিয়নের কাছারিরহাটে নানার বাড়ি থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। ওটারহাট বাজার সংলগ্ন বাটাইয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন শাহিনের বাড়ির কাছে পৌঁছলে শাহীন ও তার সমর্থক বেচুর নেতৃত্বে ৬/৭জন তার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে। পরে তারা তাকে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে তার মাথা’সহ শরীরের বিভিন্ন অংশে জখম করে। এ সময় তার মা বাধা দিতে গেলে হামলাকারীরা তাকেও পিটিয়ে জখম করে। তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে তাদের উদ্ধার করে প্রথমে কবিরহাট ও পরে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

রিয়াদ আরও অভিযোগ করেন, শাহিন কবিরহাট উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী ছিল। কিন্তু দল থেকে নির্বাচিত না করায় সে এই হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে।

অভিযোগ অস্বীকার করে বাটাইয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন শাহিন বলেন, তিনি মঙ্গলবার সকালে তার বড় বোনের সাথে তাদের বাড়ি দাগনভূঁইয়াতে আছেন। এই হামলার সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই। তার প্রতিপক্ষের কোনো লোকজন রাজনৈতিকভাবে তাকে বিপাকে ফেলতে তার বাড়ির সামনে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তিনি এই হামলার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।

কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা মোহাম্মদ হাছান জানান, খবর পেয়ে তিনি হাসপাতালে গিয়েছেন। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, গত ৬ ফেব্রুয়ারি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান আরমান ও সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত আদনান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জহিরুল ইসলাম রিয়াদ’কে কবিরহাট উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি করে কমিটি ঘোষণা করা হয়।

ঢাকাটাইমস/১৪ফেব্রুয়ারি/প্রতিনিধি/এমআর