ঢাকা, শনিবার, ২১ জুলাই ২০১৮, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬

আগামী বছর বিশ্ব ইজতেমা ১১ জানুয়ারি

https://www.jugantor.com/country-news/6707/আগামী-বছর-বিশ্ব-ইজতেমা-১১-জানুয়ারি
BY  গাজীপুর প্রতিনিধি ১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ০৬:৫৩ | অনলাইন সংস্করণ
আগামী বিশ্ব ইজতেমার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে কাকরাইল মসজিদে তাবলিগ মুরুব্বীদের এক পরামর্শ সভায় ওই তারিখ নির্ধারণ করা হয় বলে জানা গেছে। ওই বৈঠকের পরামর্শ অনুয়ায়ি আগামি বিশ্বইজতেমা শুরু হবে ২০১৯ সালের ১১জানুয়ারি।

তাবলীগ জামাতের শীর্ষ মুরুব্বী মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, শুক্রবার রাতে তাবলীগ জামাতের মুরুব্বীদের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার সিদ্ধান্তমতে আগামী বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব অনুষ্ঠিত হবে ১১, ১২ ও ১৩ জানুয়ারি এবং দ্বিতীয় পর্ব অনুষ্ঠিত হবে ১৮, ১৯ ও ২০জানুয়ারি। চলমান বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় দিন শনিবার বাদ ফজর মাওলানা মো. নূর’র বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে। কনকনে শীত ও ঘন কুয়াশা উপেক্ষা করে শনিবার সকালেও দেশ-বিদেশের মুুসুল্লীরা ইজতেমা ময়দানে আসছেন। তাবুর নীচে বা খোলা ময়দানে অবস্থান করে হাজার হাজার মুসুল্লি অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। তবু তাদের একটাই উদ্দেশ্য আল্লাহকে রাজি খুশী করা, দ্বীনের কাজে এতো কষ্টের মধ্যেও তাদের যেন কোন আক্ষেপ নেই।

ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে আসা ৬০ বছর বয়সী মো. ওয়াসিম মিয়া জানান, তিনি প্রায় ৪০বছর ধরে এ ময়দানে আসছেন। অনেক প্রতিকূল অবস্থায় তিনি তাবলীগের দাওয়াতি কাজ করেছেন। সে তুলনায় এবার টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমার ময়দানের অবস্থা অনেটাই ভাল আছে। ময়দানে উপস্থিত সবাই চাঁদর, কম্বল, জ্যাকেট, সুয়েটারসহ বিভিন্ন শীতবস্ত্র গায়ে জড়িয়ে মনোযোগের সঙ্গে মুরুব্বীদের বয়ান শুনছেন। সময়মত নামাজ, জিকির-আসগার, খাওয়া-দাওয়া- গোসল সেরে এবং ধ্যানের সঙ্গে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে মুসুল্লিদের সময় পার হচ্ছে। রোববার সকালে আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে এবারের ইজতেমার প্রথম পর্ব। বাংলাদেশের কাকরাইলের মাওলানা মো. জোবায়ের আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন বলে জানিয়েছেন ইজতেমার আয়োজক কমিটির সদস্য প্রকৌশলী মো. গিয়াস উদ্দিন। চারদিন বিরতি দিয়ে বিশ্বইজতেমার দ্বিতীয় দফা শুরু হবে ১৯জানুয়ারি। ২১জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এবারের বিশ্বইজতেমার আসর।