ঢাকা, সোমবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৮, ১০ বৈশাখ ১৪২৫
BYনাসির আহমেদ, গাজীপুর
১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১০:৪০ | আপডেট: ১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১০:৫৩

টঙ্গীর তুরাগ তীরের বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত শুরু হয়েছে। ইজতেমার মূল মঞ্চ থেকে আশপাশের সব জায়গা মুসল্লিদের আগমনে পরিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। মানুষ অবস্থান নিয়েছে রাজপথসহ আশপাশের বাসাবাড়ির ছাদে।

আজ রোববার বেলা পৌনে ১১টায় আখেরি মোনাজাত শুরু হয়। মুসল্লিরা নিজ নিজ জায়গায় বসে আল্লার দরবারে দুহাত তুলেছেন। এর আগে ট্রেনে করে সকাল থেকে লোকজন গিয়ে সেখানে জড়ো হয়েছেন।

ভারতের মাওলানা সাদ কয়েক বছর ধরে ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করলেও এবার তাঁর পরিবর্তে বাংলাদেশের কাকরাইল মসজিদের ইমাম হজরত মাওলানা যোবায়ের হাসান আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করছেন।

ইজতেমা ময়দানে বিদেশি নিবাসের পূর্বপাশে বিশেষভাবে স্থাপিত মঞ্চ থেকে এ মোনাজাত পরিচালনা করা হচ্ছে। এর আগে অনুষ্ঠিত হয় হেদায়েতি বয়ান।

এবারের ইজতেমার প্রথম পর্বের দ্বিতীয় দিন শনিবার আল্লাহ প্রদত্ত বিধি-বিধান ও মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) প্রদর্শিত তরিকা অনুযায়ী জীবন গড়ার আহ্বান জানিয়ে দেশ-বিদেশের লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি জিকির-আসকার, ইবাদত বন্দেগি আর ধর্মীয় ভাবগম্ভীর পরিবেশে পবিত্র কোরআনের আলোকে গুরুত্বপূর্ণ বয়ানের মধ্য দিয়ে অতিবাহিত করেছেন।

এই আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এবারের ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব।

এরপর চারদিন বিরতি দিয়ে আগামী শুক্রবার শুরু হবে তিনদিনের বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। আখেরি মোনাজাতে মুসল্লিদের আসা ও যাওয়া নিরাপদ করতে শনিবার দিবাগত রাত থেকে মোনাজাত অনুষ্ঠান পর্যন্ত ইজতেমা ময়দানগামী সড়কে যানবাহন চলাচলে বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে পুলিশ। এদিকে এবারও বিশ্ব ইজতেমার অন্যতম আকর্ষণ যৌতুকবিহীন বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়নি।

বিশ্ব ইজতেমা আগামী বছর শুরু হবে ১১ জানুয়ারি

আগামী বছর বিশ্ব ইজতেমা ১১ জানুয়ারি থেকে অনুষ্ঠিত হবে। শুক্রবার রাতে কাকরাইল মসজিদে তাবলিগ মুরুব্বিদের এক পরামর্শ সভায় ওই তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

বিশ্ব ইজতেমার মুরুব্বি মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, তাবলিগ জামাতের শীর্ষ মুরুব্বিদের সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী বছর বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব ১১, ১২ ও ১৩ জানুয়ারি এবং চারদিন বিরতি দিয়ে দ্বিতীয় পর্ব ১৮, ১৯ ও ২০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।

x