ঢাকা, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৫

শাস্তি পাবেন ২ শতাংশের কম শেয়ারধারী পরিচালক

http://www.dhakatimes24.com/2018/02/13/69185/শাস্তি-পাবেন-২-শতাংশের-কম-শেয়ারধারী-পরিচালক
BYনিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
ফাইল ছবি

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর পরিচালকদের প্রত্যেকের পরিশোধিত মূলধনের ২ শতাংশের নিচে শেয়ার ধারণকারীদের শাস্তির আওতায় আনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে স্বতন্ত্র পরিচালকদেরকে এই পরিমাণ শেয়ার ধারণ করতে হবে না।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশন সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বৈঠক শেষে কমিশনের এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, উদ্যোক্তা ও পরিচালকের মোট পরিশোধিত মূলধনের ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ নিশ্চিত করতে হবে।

২০১২ সালের ২২ নভেম্বর তালিকাভুক্ত কোম্পানির পরিচালকদের এককভাবে ২ শতাংশ উদ্যোক্তাদের সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ করতে বিএসইসি নির্দেশনা জারি করে। পরবর্তী ছয় মাস অর্থাৎ ২০১৩ সালের ২১ মের মধ্যে নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়

কিন্তু তালিকাভুক্ত বহু কোম্পানির ৩০ শতাংশ শেয়ার উদ্যোক্তা পরিচালকদের কাছে নেই। কোনো কোনো কোম্পানির ক্ষেত্রে এই সংখ্যাটা আরও কম। আবার দুই শতাংশ শেয়ার ধারণ না করেও কোম্পানির উদ্যোক্তা পরিচালক হয়ে আছেন, এমন সংখ্যাটাও কম না। এসব উদ্যোক্তা পরিচালক বাজারে উচ্চমূল্যে তাদের শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন।

যেসব উদ্যোক্তা পরিচালকদের দুই শতাংশ শেয়ার নেই, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এসইসির এনফোর্সম্যান্ট বিভাগে বিষয়টি পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে এসইসির সভায়।

এই সিদ্ধান্তটি ছাড়াও এসইসির বৈঠকে আরও কিছু সিদ্ধান্ত হয়। এর মধ্যে আছে বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে আমান কটন ফাইব্রসের শেয়ার ইস্যু। এর মধ্যে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ৪০ টাকা মূল্যে এক কোটি ২৫ লাখ শেয়ার এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ৩৬ টাকায় ৯৩ লাখ ৩৩ হাজার ৩৩৩টি শেয়ার ইস্যু করা হবে।

এ ছাড়া ১০ বছর মেয়াদি SEML FBLML ফান্ডের প্রসপেকটাস অনুমোদন করা হয়। এই ফান্ডটি হবে ১০০ কোটি টাকার।  

(ঢাকাটাইমস/১৩ফেব্রুয়ারি/ডব্লিউবি/জেবি)