ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
BYনিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস

দুর্নীতির দুটি অভিযোগ অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে আরব-বাংলাদেশ ব্যাংক (এবি) ও ফারমার্স ব্যাংকের ৯ কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

দুদকের উপ-পরিচালক ও জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য জানান, এবি ব্যাংক লিমিটেডের যে ছয়জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে, তারা হলেন- সদ্য সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মশিউর রহমান চৌধুরী, ডিএমডি বদরুল হক খান, প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) মহাদেব সরকার সুমন, দুই সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সালমা আক্তার ও ওয়াসিকা আফরোজী এবং ভিপি মঞ্জুর মফিজ। অন্যদিকে ফারমার্স ব্যাংকের যে তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়, তারা হলেন সাবেক অতিরিক্ত ডিএমডি এ কে এম শামীম, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ফয়সাল আহসান চৌধুরী ও সাবেক অ্যাসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. আবু তাহের।

জালিয়াতি ও ভুয়া কাগজপত্রের মাধ্যমে জামানত না দিয়েই ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে বিদেশে অর্থপাচারের অভিযোগ অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে এবি ব্যাংকের সদ্য সাবেক এমডিসহ ছয় কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ সিরাজুল হক তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

দুদক জানায়, বিটস ফ্যাশন লিমিটেডসহ ২৩টি প্রতিষ্ঠানের মালিকের বিরুদ্ধে জাল-জালিয়াতি ও ভুয়া কাগজপত্রের মাধ্যমে জামানত না দিয়েই ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে বিদেশে অর্থপাচারের অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। গত মার্চ থেকে এ অভিযোগ অনুসন্ধান করছে দুদক।

অন্যদিকে ফারমার্স ব্যাংক থেকে অনিয়মের মাধ্যমে বিপুল অর্থ আত্মসাৎ ও অর্থপাচারের অভিযোগ অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। উপ-পরিচালক সামছুল আলমের নেতৃত্বে একটি দল তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

(ঢাকাটাইমস/২৩অক্টোবর/আরকে/এআর)