ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৬

সূচকের সঙ্গে লেনদেনেরও পতন

https://www.jagonews24.com/economy/news/439214
BYনিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশিত: ০৪:১৯ পিএম, ১২ জুলাই ২০১৮

টানা দুই কার্যদিবস ব্যাংক খাতের কল্যাণে শেয়ারবাজার পতনের হাত থেকে রক্ষা পেলেও সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্য সূচকের পতন হয়েছে। সেই সঙ্গে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

আগের দুই কার্যদিবস ব্যাংক খাতের প্রতিষ্ঠানগুলো মূল্য সূচক বাড়াতে ভূমিকা রাখলেও বৃহস্পতিবার ছিল ব্যতিক্রম। অন্য খাতগুলোর পাশাপাশি ব্যাংকের সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম কমেছে। ফলে পতনের তালিকায় স্থান হয়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম।

এদিন ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ব্যাংক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ২৩টিরই শেয়ার দাম কমেছে। বিপরীতে দাম বেড়েছে ছয়টির। আর সব খাত মিলে ডিএসইতে ৯১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ২২২টি প্রতিষ্ঠান। আর ২৫টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম কমায় ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ২০ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৩৫৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দু’টি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ৮ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৯০৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। তবে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক দশমিক ৩৮ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৬৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

এদিকে মূল্য সূচকের পাশাপাশি লেনদেনেও লেগেছে নেতিবাচক প্রভাব। ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৮৫২ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় এক হাজার ১১৫ কোটি ২৯ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ২৬২ কোটি ৩২ লাখ টাকা।

এদিন ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে সিঙ্গার বিডির শেয়ার। কোম্পানিটির ৪৩ কোটি ৬৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশনের ৩৯ কোটি সাত লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২৫ কোটি ১৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে কেডিএস।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- বিবিএস কেবলস, মুন্নু সিরামিক, লিগাসি ফুটওয়্যার, বসুন্ধরা পেপার, কুইন সাউথ টেক্সটাইল, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল এবং পেনিনসুলা চিটাগাং।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ৭৪ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৯৯৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে। লেনদেন হয়েছে ৪৮ কোটি ১৭ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৫৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৬৪টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৮১টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৪টির দাম।

এমএএস/এএইচ/পিআর