ঢাকা, রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৫ ফাল্গুন ১৪২৬

জনতা ব্যাংক ও ক্রিসেন্ট গ্রুপের ২২জনের ‍বিরুদ্ধে মামলা

http://www.pbd.news/https:/pbd.news/crime/92815
BYনিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ:  ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:৪৯

এক হাজার ৭৪৫ কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় ক্রিসেন্ট গ্রুপের ৭ পরিচালকের বিরুদ্ধে রাজধানীর চকবাজার থানায় ৫টি মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ মামলায় জনতা ব্যাংকের ১৫ কর্মকর্তাকেও আসামি করা হয়েছে।

রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুদকের সহকারী পরিচালক মো. গুলশান আনোয়ার প্রধান বাদী হয়ে মামলাগুলো করেন।

আসামিরা হলেন- ক্রিসেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এ কাদের, রূপালি কম্পোজিট লেদার লিমিটেডের পরিচালক সামিয়া কাদের নদী, ক্রিসেন্ট লেদার প্রোডাক্ট লিমিটেডের পরিচালক সুলতানা বেগম, পরিচালক রেজিয়া বেগম, রিমেক্স ফুটওয়্যার লিমিটেডের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল আজিজ ও ব্যবস্থপনা পরিচালক লিটুন জাহান মীরা ও মেসার্স লেক্সকো লিমিটেড পরিচালক মো. হারুন-অর-রশীদ।

জনতা ব্যাংকের আসামিরা হলেন- জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন, মো. মনিরুজ্জামান, মো. সাইদুজ্জামান, প্রিন্সিপাল অফিসার মোহাম্মদ রুহুল আমীন, সিনিয়ার প্রিন্সিপাল অফিসার মো. মাগরেব আলী, মো. খায়রুল আমিন, বাহারুল আলম, এজিএম মো. আতাউর রহমান সরকার, এস এম শরীফুল ইসলাম, ডিজিএম (বর্তমানে সোনালী ব্যাংকের ডিএমডি) মো. রেজাউল করিম, ডিজিএম মুহাম্মদ ইকবাল, একেএম আসাদুজ্জামান, কাজী রইস উদ্দিন আহমেদ, ডিএমডি মো. জাকির হোসেন ও ডিমডি ফখরুল আলম।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ক্রিসেন্ট গ্রুপের ৫টি প্রতিষ্ঠান ক্রিসেন্ট লেদার প্রডাক্ট লিমিটেড, ক্রিসেন্ট ট্যানারিজ লিমিটেড,লেসকো লিমিটেড, রুপালী কম্পোজিট লেদারওয়্যার ও রিমেক্স ফুটওয়্যার লিমিটেড জনতা ব্যাংকের ইমামগঞ্জ শাখা থেকে যোগসাজশসে ১ হাজার ৭শত ৪৬ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে এলসির মাধ্যমে বিদেশে পাচার করেছে

পিবিডি/টিএইচ