ঢাকা, শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮, ৮ বৈশাখ ১৪২৫

বর্তমানে দেশের ব্যাংকিং খাত বিকলাঙ্গে পরিণত হয়েছে: ড. দেবপ্রিয়

http://www.pbd.news/lead-news/46976/বর্তমানে-দেশের-ব্যাংকিং-খাত-বিকলাঙ্গে-পরিণত-হয়েছে-ড.-দেবপ্রিয়
BYনিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ:  ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৫:৪১ | আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৭:০৮

প্রিন্ট বর্তমানে দেশের ব্যাংকিং খাত বিকলাঙ্গে পরিণত হয়েছে বলে মনে করছে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ (সিপিডি)। একই সঙ্গে আর্থিক খাতের এই মূলস্তম্ভটি এতিমে পরিণত হয়েছে বলেও মনে করছে এই গবেষণা সংস্থাটি।

মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটের সুপারিশ তুলে ধরতে আয়োজিত এক মিডিয়া ব্রিফিংয়ে সিপিডির পক্ষে এসব কথা বলেন সংস্থাটির বিশেষ ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য।

ঘোষিত মুদ্রানীতি মেনে চলতে হবে উল্লেখ করে দেবপ্রিয় বলেন, ‘তারল্য ঘাটতির কথা বলে সরকার মুদ্রানীতি ঘোষণার কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সিআরআর কমিয়ে দিয়ে মুদ্রার ফ্লো বাড়ানোর চেষ্টা করলো। আসলে তারল্য ঘাটতি একটি রোগের উপসর্গ, এটা কোন রোগ না। রোগ হলো আপনি (সরকার) একটি বিকলাঙ্গ ব্যাংকিং ব্যবস্থা সৃষ্টি করেছেন’।

তিনি বলেন, ‘ব্যাংকিং ব্যবস্থার বিষয়ে গত বছরের শুরুতে আমরা বলেছিলাম ২০১৭ সাল ব্যাংকিং কেলেঙ্কারির বছর। এবার আমাদের মনে হচ্ছে ব্যাংকিং খাত নিতান্তই এতিমে পরিণত হয়েছে। এর রক্ষকরাই এখন এই শিশু, এতিমের ওপর অত্যাচার করছেন। যাদের এটা রক্ষা করার কথা ছিল, তারাই বিভিন্ন চাপের মুখে বিভিন্ন কাজ করে যাচ্ছেন’।

দেবপ্রিয় বলেন, ‘মুদ্রানীতি ও ব্যাংকিং খাতে সংযত থাকার দরকার আছে। একই রকমভাবে মুদ্রা বিনিময় হারে সংযত থাকার দরকার আছে। আপনি এটাকে গতিশীল ও স্থিতিশীল করবেন। বিনিময় হারে হয় তো ডলারের দাম বাড়বে। কিন্তু এমনভাবে মজুদ বাড়িয়ে সামাল দিতে হবে যাতে আমদানি ব্যয় উস্কে না দেয়। সুদের হার, বিনিময় হার, ঋণের প্রবাহ সংযতই রাখতে হবে’।

ওএফ