ঢাকা, বুধবার, ১৮ জুলাই ২০১৮, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

ওজনের ওপর আবেগের ইতিবাচক ও নেতিবাচক প্রভাব

http://deho.tv//ওজনের-ওপর-আবেগের-ইতিবাচক/
BYBy deho.tv
3 months and 3 days ago
People Also Read
চোখে চোখ পড়লেই চোখ ওঠে নাশরীরের যেসব স্থানের ব্যথা ভুলেও অবহেলা করবেন না!বিয়ের আগে যেসব পরীক্ষা করতে ভুলবেন নাযেসব কাজ স্ট্রোক হওয়ার ঝুঁকি হ্রাস করেকিডনি পাথর প্রতিরোধে ঘরোয়া উপায়অ্যাকজিমায় প্রদাহ মৃদু থেকে তীব্র হতে পারে Your RatingUser Rating: 0 ( 0 votes ) জন নিয়ে কম-বেশি সবাই দুশ্চিন্তায় ভোগেন। অনেকেই ওজন কমাতে ডায়েট ও নিয়ম করে ব্যায়াম করেন। তবে ডায়েট-ব্যায়াম ছাড়াও ওজন কমানো সম্ভব। এক্ষেত্রে ভূমিকা রাখে মানুষের আবেগ। এটি মানুষের শরীর তথা মনের ওপর এমনভাবে প্রভাব ফেলে; যার ফলে সহজেই ওজন কমে। যে কেউ ইচ্ছা করলেই স্লিম কিংবা শরীরটাতে একটি নির্দিষ্ট আকৃতিতে নিয়ে আসতে পারেন। এটি ইচ্ছাকৃতভাবে কিংবা অনিচ্ছাকৃতভাবে উভয়ই হতে পারে। অনেকের মধ্যে হতাশা এবং আত্মসম্মানবোধ দুটো অনেক বেশি থাকে। এসব ব্যক্তিরা যদি তাদের এই আবেগগুলো নিয়ন্ত্রণ করতে না পারেন তাহলে তাদের ওজন বাড়ে। আসলে আবেগ হলো একটি মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ। এদের মধ্যে ইতিবাচক আবেগে ওজন কমে আর নেতিবাচক আবেগে তা আরও বাড়ে। আসুন জেনে নিন ওজনের ওপর আবেগের ইতিবাচক ও নেতিবাচক প্রভাব-ইতিবাচক আবেগ আত্মবিশ্বাস বাড়ে যখন কোন ব্যক্তি তার জীবনের কাঙ্কিত লক্ষ্যে পৌঁছতে সক্ষম হয় তখন তার আত্মবিশ্বাসের মাত্রাটাও অনেক বেড়ে যায়। একইসঙ্গে তার আত্মসম্মানের স্তরটাও বাড়ে। এ সময় তারা এতটাই আত্মবিশ্বাসী থাকেন যে তারা যে কোন কাজ মুক্ত মনে কোন সচেতনতা ছাড়াই সহজে করে ফেলেন। এতে কোন দুশ্চিন্তা তাদের ওপর ভর করে না; ফলে সহজেই ওজন কমে। তবে অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস কিন্তু ক্ষতিকর।আত্নসম্মান বাড়ে প্রাকৃতিকভাবে আত্মসম্মানবোধ এবং ওজনের মধ্যে একটা সম্পর্ক রয়েছে। আত্মসম্মান বাড়লে ব্যক্তির জীবনধারা পরিবর্তিত হয়, যা ওজন কমাতে ভূমিকা রাখে।নেতিবাচক আবেগ হতাশা যখন কোন ব্যক্তি ওজন কমানোর চেষ্টা করেন তখন তিনি তার খাদ্যাভাসে পরিবর্তন আনেন। আর অতিরিক্ত ওজন কমানোর সঙ্গে হতাশা এবং কম আত্মসম্মানবোধের সম্পর্ক রয়েছে। এটা ব্যক্তির প্রতিচ্ছবিতেও পরিবর্তন আনে। এ সময় তারা নিজেরা যতটা মোটা নন ততটাই নিজেকে মনে করেন। এটা তাদের আরও বেশি হতাশায় ভোগায় এবং খ্যাদ্যাভাসে বিশৃঙ্খলা নিয়ে আসে।মনোযোগের অভাব সবসময় কিছু মানুষের মধ্যে ওজন লুকিয়ে রাখার একটা প্রবণতা দেখা যায়। যখন আপনার ওজন অনেক কমে যায় তখন সবাই আপনার দিকে তাকিয়ে প্রশংসা করে। সেটা আপনি ইতিবাচক দৃষ্টিতেই দেখেন। তখন বিপরীত লিঙ্গের মানুষের আকর্ষণ বাড়াতে আপনি আরও ওজন কমানোর চেষ্টা চালিয়ে যান।
অতিরিক্ত আত্মসম্মানবোধ আত্মসম্মানের মাত্রাটা বেড়ে গেলে তা মনের ওপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। তবে এর মাত্রাটা বেড়ে যাওয়াটা অবশ্যই ক্ষতিকর। যেসব লোক ওজন কমিয়ে তাদের শরীরের নতুন আকৃতি নিয়ে গর্ববোধ করেন তারা তাদের আচরণে ব্যাপক পরিবর্তন আনেন।সম্পর্কের উত্তেজনা সঙ্গী যদি আপনার চেয়ে অনেক মোটা হয় তাহলে তার প্রতি আপনার আকর্ষণ হারিয়ে যায়। অন্যদিকে সেও তার শরীর নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকে। এতে সম্পর্কে উত্তেজনা থেকেই যায়।ভয় এবং উদ্বেগ আপনি যদি সবসময় ভয় এবং উদ্বেগে থাকেন তাহলে আপনার ওজন বাড়বেই। শরীর থেকে ওজন ঝরলে একটি কাঙ্খিত ওজনে পৌঁছানো যায়। এজন্য ভয় এবং উদ্বেগ নয়; দরকার সঠিক নিয়মে খাবারদাওয়া এবং ব্যায়াম।রাগ ওজন কমলে আপনি সহজেই রেগে যেতে পারেন। কাজেই আপনি আগে কেমন ছিলেন এবং এখন কেমন আছে তা মিলিয়ে দেখুন। আর ইতিবাচক ও নেতিবাচক যে কোন আবেগ মেনে নেওয়ার জন্য নিজেকে প্রস্তুত রাখুন।অসময়ে খাদ্যাভাস যারা ওজন কমান তারা সবসময় ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার চাপের কারণে দুশ্চিন্তায় থাকেন। এ কারণে অনেক সময়ে তারা খাবরে অনিয়ম করে থাকেন। এর ফলেও ওজন বাড়ে। কাজেই ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সবসময় সঠিক খাদ্যাভাসের বিকল্প নেই।

Share this: