ঢাকা, শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮, ৮ বৈশাখ ১৪২৫
BYফিচার ডেস্ক
১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৭:০৫

হিমোফিলিয়া এক ধরনের জন্মগত রক্তরোগ। এ বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩০৬০তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. মুনিম আহমেদ। বর্তমানে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের হেমাটোলজি বিভাগের রক্তরোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : হিমোফিলিয়া রোগটি কী? এই রোগে মানুষ কীভাবে আক্রান্ত হন?উত্তর : হিমোফিলিয়া রোগটি হলো জন্মগত রক্তরোগ। আমরা জানি, আমাদের শরীরে রক্ত জমাট বাঁধার জন্য ১৩টি ফ্যাক্টর থাকে। একে আমরা ক্লটিং ফ্যাক্টর বলি। হিমোফিলিয়া হলো ফ্যাক্টর এইট ও ফ্যাক্টর নাইনের অভাব। রোগটি কীভাবে তাহলে জন্মগত হলো? আমরা জানি, পুরুষের জেনেটিক গঠনে একটি এক্স ক্রোমোজম ও একটি ওয়াই ক্রোমোজম থাকে। আর একজন নারীর শারীরিক গঠনে দুটো এক্স ক্রোমোজম থাকে। এই যে ক্লটিং ফ্যাক্টর এইট ও নাইন—এ দুটো ফ্যাক্টরের জিন বহন করে এক্স ক্রোমোজম। তাহলে এই এক্স ক্রোমোজম যদি একটি নষ্ট থাকে, তাহলে এই রোগটি সে বহন করে। এটা অটোজোমাল রিসেসিক ডিজঅর্ডার। তাকে রোগ প্রকাশ পেতে হলে দুটো জিনই নষ্ট থাকতে হবে। নারীরা এই জন্য কখনো আক্রান্ত হয় না। তার নীরব বাহক থাকে। কারণ নারীদের গঠনে আমরা দুটো এক্স ক্রোমোজম দেখি। তার মধ্যে একটি এক্স ক্রোমোজম যদি নষ্ট থাকে, আরেকটি তো ভালো থাকে। সেখান থেকে সে ফ্যাক্টর এইট ও নাইন পেয়ে যাচ্ছে। কিন্তু পুরুষের গঠন যদি আপনি দেখেন, একটি এক্স ও একটি ওয়াই, সেই পুরুষ যদি বহনকারী মায়ের কাছ থেকে আক্রান্ত এক্স ক্রোমোজম পেয়ে থাকে, তাহলে আক্রান্ত ক্রোমোজম থেকে সে আর ফ্যাক্টর এইট বা নাইন পাচ্ছে না।প্রশ্ন : বাবার থেকেও তো পেতে পারেন?

উত্তর : বাবার থেকে পাওয়াটা খুব কম।