ঢাকা, সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

চেয়ারে বসা নিয়ে হাতাহাতিতে ঢামেকের ৫ চিকিৎসক আহত

http://www.rtvonline.com/bangladesh/46229/চেয়ারে-বসা-নিয়ে-হাতাহাতিতে-ঢামেকের-৫-চিকিৎসক-আহত
BYআরটিভি অনলাইন রিপোর্ট|  ১১ জুলাই ২০১৮, ১১:৩৪ | আপডেট : ১১ জুলাই ২০১৮, ১১:৪২

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে চেয়ারে বসা নিয়ে চিকিৎসকদের বিবাদ হাতাহাতি পর্যন্ত গড়িয়েছে। এতে আহত হয়েছেন পাঁচ চিকিৎসক।

মঙ্গলবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ডা. মিলন অডিটরিয়ামে এ ঘটনা ঘটে। তাদের ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা মেডিকেল কলেজের ডা. মিলন অডিটরিয়ামে ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন।----------------------------------------- আরও পড়ুন : পাঁচ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ছয় ----------------------------------------

জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন-এর উপস্থিতিতে রাতে ডাক্তার মিলন অডিটোরিয়ামে কলেজের ছাত্রলীগের কিছু জুনিয়র চিকিৎসক অডিটরিয়ামে ঢুকে সিনিয়রদের চেয়ারে বসে। এতে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। তখনই বিষয়টি মিটিয়ে দেন ডা. জালাল। কিছুক্ষণ পর বেশ কয়েকজন জুনিয়র চিকিৎসক ভিতরে ঢুকে মারামরি শুরু করে দেন। এতে ৫ থেকে ৬ জন চিকিৎসক আহত হন।

আহতরা হলেন- নেফ্রোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মোস্তাফিজুর রহমান রিজভী, নাক-কান-গলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আল মারুফ ও ইউরোলজি বিভাগের রেজিস্ট্রার এইচএম আফজালুল হক রানা। বাকি দুই জন চিকিৎসকের নাম জানা যায়নি।

এ ব্যাপারে ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, ডিএমসি ডে উপলক্ষে দিনভর আনন্দ উৎসব চলছিল ডা. মিলন অডিটোরিয়ামে। রাতে কিছু জুনিয়র চিকিৎসক সিনিয়রদের চেয়ারে বসে, এতে যারা ভলান্টিয়ার ছিলেন তারা বলেন এটা সিনিয়রদের চেয়ার এখানে বসা যাবে না। এই নিয়ে জুনিয়ররা একটু হইহল্লাহ করে। তখনই বিষয়টা মীমাংসা হয়ে যায়। পরে আবার এই নিয়ে উত্তেজনা দেখা দেয় এবং দুইপক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। এতে বেশ কয়েকজন চিকিৎসক সামান্য আহত হন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন :

পি