ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭

হবিগঞ্জে ‘থানায় আটকে রেখে টাকা আদায়’, ওসি প্রত্যাহার

http://bangla.bdnews24.com/samagrabangladesh/article1802987.bdnews
BY  হবিগঞ্জ প্রতিনিধি,  বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 20 Sep 2020 01:16 AM BdST Updated: 20 Sep 2020 02:08 AM BdST

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আনোয়ার হোসেন শনিবার এই তথ্য জানান।

অন্য চার পুলিশ সদস্যের মধ্যে একজন এসআই ও তিনজন কনস্টেবল রয়েছেন বলে জানালেও তাদের নাম বলেননি পুলিশ কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন।

তিনি বলেন, গত ১৪ সেপ্টেম্বর শায়েস্তাগঞ্জের স্কয়ার ফ্যাক্টরির সামনে থেকে লুৎফুর রহমান নামে এক ব্যক্তি অন্য এক ব্যক্তির সঙ্গে তার মোটরসাইকেল করে অলিপুর আসছিলেন। পথে পুলিশ মোটরসাইকেল আটক করে কাগজপত্র দেখতে চায়। মোটরসাইকেলওয়ালা ব্যক্তি লুৎফুর রহমানের জিম্মায় মোটরসাইকেল রেখে বাড়ি যান কাগজপত্র আনতে। কিন্তু তিনি আর কাগজপত্র নিয়ে না আসেননি।

পুলিশ কর্মকর্তা আনোয়ার বলেন, পুলিশ লুৎফুর রহমানকে থানায় নিয়ে যায়। পরে তাকে হাজতে আটকে টাকা দাবি করেন শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসি মোজাম্মেল হোসেন। অন্যথায় তাকে ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দেওয়া হয়। একপর্যায়ে লুৎফর সাড়ে ২৮ হাজার টাকা দিয়ে রাতে থানা থেকে মুক্তি পান। এ ঘটনায় গত ১৭ সেপ্টেম্বর লুৎফুর রহমান হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লার কাছে অভিযোগ করেন।

পুলিশ কর্মকর্তা আনোয়ার বলেন, অভিযোগের পর গঠিত একটি কমিটি তদন্ত শুরু করে। এতে প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় ওসিসহ পাঁচ পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়। তাদের মধ্যে একজন এসআই এবং তিনজন কনস্টেবল রয়েছেন।

এ ব্যাপারে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে বলে জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন।