ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৬

মুজিবনগর দিবস উদযাপনে প্রস্তুত মেহেরপুর

http://www.dhakatimes24.com/2018/04/16/77485/মুজিবনগর-দিবস-উদযাপনে-প্রস্তুত-মেহেরপুর
BYমেহেরপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সূতিকাগার অস্থায়ী রাজধানী মেহেরপুরের মুজিবনগরে ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবস উদযাপন উপলক্ষে সাজসাজ রব বিরাজ করছে। মেহেরপুর জেলা শহর থেকে শুরু করে ১৫ কিলোমিটার মুজিবনগর পযর্ন্ত প্রধান সড়কে জাতীয় নেতা ও সরকার দলীয় স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাদের ছবিসংবলিত অসংখ্য ডিজিটাল ব্যানার, ফেস্টুন, প্লাকার্ড ও দৈঘ্য তরুণ স্থাপন করা হয়েছে। মুজিবনগর স্মৃতিসৌধ নতুনরূপে সাজানো চলছে।

মেহেরপুর-মুজিবনগর ৯ কিলোমিটার প্রধান সড়ক ২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়েছে। মুজিবনগর আম্রকাননের স্মৃতিসৌধের পাশে শেখ হাসিনা মঞ্চে পূর্ব নির্ধারিত বিশাল আলোচনা সভাস্থলে বিদ্যুৎ বিভাগের সার্বক্ষণিক বিদ্যুতের ব্যবস্থার জন্য রাতদিন কাজ করছে। মুজিবনগর বাগান ঝাড়ু দিয়ে পরিষ্কার করা হয়েছে। যেন নব রূপে সেজেছে ৭১-র মুজিবনগরের আম্রকানন।

১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল মেহেরপুরের মুজিবনগর আম্রকাননে মঞ্চ তৈরি করে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের প্রথম মন্ত্রিপরিষদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এ শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে গার্ড-অফ-অনার প্রদানকারী মুজিবনগর ভবেরপাড়া গ্রামের ১২ আনসার-মুক্তিযোদ্ধার মধ্যে চারজন আনসার মুক্তিযোদ্ধা জীবিত আছে। এরা হলো- আজিমদ্দিন (৭৫), সিরাজুল ইসলাম (৬৭), লিয়াকত আলি (৬৫) ও সোনাপুর গ্রামের হামিদুল ইসলাম(৬৬)। বাকি যে আটজন মারা গেছেন, এরা হলেন- ভবেরপাড়া গ্রামের অস্থির আলি, নজরুল ইসলাম, মফিজ উদ্দিন, কেসমত আলি, মহিম উদ্দিন ও ফকির মহাম্মদ। পাশ্ববর্তী সোনাপুর গ্রামের সাহেব আলি ও ইরাদ আলি। আটজন মৃত আনসার মুক্তিযোদ্ধার মুজিবনগর কমপ্লেক্সে ভাস্কর্য নির্মিত হয়েছে। এই জীবিত চার আনসার মুক্তিযোদ্ধার প্রধান মন্ত্রীর কাছে দাবি তাদের ও স্মৃতি ভাস্কর্য তৈরি করতে হবে।

১৭ এপ্রিলকে রাষ্ট্রীয় ছুটি ঘোষণা করতে হবে।

মেহেরপুর-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফরহাদ হোসেন জানান, এবার ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবস জনসভায় লক্ষাধিক মানুষের সমাবেশ হবে। জেলা আওয়ামী লীগ ও জেলা প্রশাসন থেকে সকল আয়োজন সম্পন্ন হয়েছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সূতিকাগার এই মুজিবনগর সরকারের স্মরণে মেহেরপুরবাসী এই দিনটির অপেক্ষায় থাকে। উৎসবে মেতে উঠে।

এদিকে জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ জানান, ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে মুজিবনগরে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এমপি। সভায় সভাপতিত্ব করবেন মুজিবনগর দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক ও স্বাস্থ্য ও পরিবাব কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠান সূচি হলো: সূর্যোদয়ের সাথে সাথে মুজিবনগর মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিকেন্দ্রে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ৮টায় স্মৃতিকেন্দ্রে পূস্পস্তবক অর্পন এবং মুক্তিযোদ্ধা, বিজিবি, পুলিশ বাহিনী, আনসার ও ভিডিপি, বিএনসিসি, স্কাউট, গার্লস গাইড ও স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা কুচকাওয়াজ প্রদর্শন। সকাল ৯টায় শেখ হাসিনা মঞ্চে ‘হে তরুণ্য তুমি দাঁডাও’ শিরোনাম উপস্থাপন। সকাল সাড়ে ৯টায় আলোচনা সভা ও বিকাল ৫টায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে বিকাল ৫টায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে দেশ বরেণ্য শিল্পীরা সঙ্গীত পরিবেশন করবেন। এছাড়াও কমপ্লেক্স এলাকাজুড়ে আলোকাসজ্জা করা হয়েছে। থাকছে রঙিন আলোর ঝলকানি। এদিকে কমপ্লেক্স এলাকা মনোরম পরিবেশে সজ্জিত করা হয়েছে। ব্যানারে-ফেস্টুনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমান, প্রথম সরকারের মন্ত্রিপরিষদ সদস্য (জাতীয় চার নেতা) ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি স্থান পেয়েছে। মেহেরপুর-মুজিবনগর সড়করে দুইপাশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে।

এবারের অনুষ্ঠান ঘিরে সর্বোচ্চ নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার পরামর্শে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে বলে জানালেন মেহেরপুর পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান।

(ঢাকাটাইমস/১৬এপ্রিল/প্রতিনিধি/এলএ)