ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৭ আশ্বিন ১৪২৭
BYযশোর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস

যশোরে বিয়ের আলোকসজ্জা দেখে বাড়ি ফেরার সময় বিদ্যুতের খুঁটিতে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় নববধূসহ একই পরিবারের তিন নারী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছে শিশুসহ চারজন। বেপরোয়া গাড়ি চালানোর অভিযোগে পুলিশ নিহত নববধূর স্বামী শফিকুল ইসলাম জ্যোতিকে (২৮) আটক করেছে। তিনি মদ্যপ ছিলেন কি না তাও পরীক্ষা করছে পুলিশ।

শুক্রবার দিবাগত রাত ১টার দিকে শহরের পুরাতন কসবা শহীদ মসিয়ূর রহমান সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন যশোর শহরের ঢাকারোডের বিসিএমসি কলেজ এলাকার ইয়াসিন আলীর মেয়ে ও আদদ্বীন সখিনা মেডিকেল কলেজের চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী নববধূ তনিমা ইয়াসমিন পিয়াসা (২৫), তার বোন তানজিলা ইয়াসমিন (২৮) ও খালাত ভাই মঞ্জুর হোসেনের স্ত্রী আফরোজা তাবাসসুম তিথী (২৬)।

দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন পিয়াসার স্বামী; শহরের লোন অফিসপাড়ার এলাকার ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলাম জ্যোতি (২৮), খালাত ভাবী তাবাসসুম তিথীর মেয়ে মেয়ে মানিজুর (৩), জ্যেতির বন্ধু শাহিন হোসেন (২৩) ও হৃদয় (২৮)।

নিহত পিয়াসার চাচাত ভাই আব্দুল করিম জানান, গাড়ির চালক শফিকুল ইসলাম জ্যোতির সঙ্গে তনিমা ইয়াসমিন পিয়াসার (২৫) দেড় বছর আগে বিয়ে হয়। আগামী ২৩ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে পিয়াসাকে তাদের তুলে নেয়ার কথা। এ কারণে জ্যোতির বাড়িতে আলোকসজ্জা করা হয়। পিয়াসা রাতে ফোন করে জ্যোতিকে জানান, তারা আলোকসজ্জা দেখবেন এবং শহর ঘুরবেন। এ কারণে শুক্রবার রাত ১০টার দিকে জ্যোতি তার নিজস্ব প্রাইভেটটি নিয়ে বের হন। গাড়িতে পিয়াসার বোন তানজিলা ইয়াসমিন ও পিয়াসার খালাত ভাবী আফরোজা তাবাসসুম তিথী, তার মেয়ে মানিজুর, জ্যোতির বন্ধু শাহিন হোসেন ও হৃদয় ছিলেন। তারা আলোকসজ্জা দেখে শহরে তাদের স্বজনদের দাওয়াত দিয়ে রাত সাড়ে ১২টার দিকে শহরের পালবাড়ি এলাকা থেকে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন। ফেরার পথে শহরের পুরাতন কসবা শহীদ মসিয়ূর রহমান সড়কের (আকিজের গলি) পাশে থাকা একটি বিল্ডিংয়ের প্রাচীর ও বিদ্যুতের খুঁটিতে সজোরে আঘাত করে গাড়িটি। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন মারা যান। গাড়িতে থাকা অন্যরা কমবেশি আহত হন। আহতদের যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।