ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৬
BYক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস

ভায়াদোলিদের বিপক্ষে জয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছে বার্সেলোনা। প্রতিপক্ষের মাঠে শনিবার রাতে আর্তুরো ভিদালের একমাত্র গোলে দলটি পূর্ণ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে। এ জয়ে টেবিলের শীর্ষে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান কমাল কিকে সেতিয়েনের শিষ্যরা।

জুনে লা লিগা ফেরার পর থেকে একটানা খেলে যাচ্ছেন মেসি, এদিনও ভিদালের গোলে ভালো অবদান ছিল তার। মেসির দারুণ থ্রু পাস থেকে বক্সের ভেতর ডান পাশে বল পেয়েছিলেন ভিদাল। ডান পায়ের আড়াআড়ি শটে চিলিয়ান মিডফিল্ডার শুরুতেই স্বস্তি এনে দেন বার্সাকে।

ভিদালের গোলে অবদান রেখে মৌসুমের ২০ তম অ্যাসিস্ট ছুঁয়েছেন মেসি। ২০০৮-০৯ মৌসুমে জাভির পর লা লিগার প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে এক মৌসুমে অন্তত ২০টি অ্যাসিস্ট করেছেন তিনি। আর ২২ গোলের সঙ্গে ২০ অ্যাসিস্টের কম্বো প্যাকেজে ১৭ বছর পুরনো থিয়েরি অঁরির রেকর্ডও ছুঁয়েছে মেসি।

বার্সা অবশ্য প্রথমার্ধেই ভায়াদোলিদকে ছিটকে দিতে পারত ম্যাচ থেকে। আঁতোয়া গ্রিজম্যান গোলের সামনে থেকে সহজ এক সুযোগ নষ্ট করেছেন। মেসিও গোলের কাছাকাছি গিয়েছিলেন, তবে তার শট ভায়াদোলিদ ফুটবলারের গায়ে লেগে চল যায় বাইরে দিয়ে।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গ্রিজম্যানকে বসিয়ে লুইস সুয়ারেজকে মাঠে নামিয়েছিলেন সেতিয়েন। তখন অনেকটা ৪-৪-২ এ ফিরে গেছে বার্সা। তবে এই অর্ধে বার্সাকে আক্রমণের চেয়ে রক্ষণে মনোযোগী হতে হয়েছে বেশি। সেই কাজটা অবশ্য টের স্টেগানই বেশি করেছেন। ম্যাচের ৬০ মিনিটে ফ্রি কিক থেকে এনেস উনালের টেক্সটবুক হেড দুর্দান্ত এক সেভে গোলে পরিণত হতে দেননি বার্সার জার্মান গোলরক্ষক।

ম্যাচের ৮১ মিনিটে অবশ্য বিপদ হতে পারত বার্সার জন্য। বদলি জুনিয়র ফিরপোর বিপক্ষে পেনাল্টির আবেদন করেছিলেন ভায়োদোলিদ খেলোয়াড়েরা। যদিও রেফারি বা ভিএআর কেউই সাড়া দেয়নি তাতে। আর যোগ করা সময়ে আরও একবার বার্সার মান বাঁচিয়েছেন স্টেগান। ভায়াদোলিদ তখন বার্সার ওপর ভালোই চাপ প্রয়োগ করছিল। শেষ পর্যন্ত অবশ্য আর পথ হারাতে হয়নি বার্সাকে।

(ঢাকাটাইমস/১২ জুলাই/এআইএ)