ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৬

আজ ঢাকা উত্তর সিটি মেয়র পদে বিএনপির মনোনয়ন বিক্রি, কাল বোর্ডের সভা

http://www.ittefaq.com.bd/capital/2018/01/14/143359.html
BYইত্তেফাক রিপোর্ট
১৪ জানুয়ারী, ২০১৮ ইং ০০:২৯ মিঃ

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির আগ্রহী প্রার্থীদের আজ রবিবার মনোয়নপত্র কিনে আগামীকাল সোমবারের মধ্যে জমা দিতে বলা হয়েছে। গতকাল রাতে বিএনপির মনোনয়ন বোর্ডে সিদ্ধান্তে হবে কে পাবেন ধানের শীষ। গতকাল শনিবার রাতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে তার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। আজ সকাল থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত দলের নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ মনোনয়নপত্র পাওয়া যাবে। স্থায়ী কমিটির বৈঠক থেকে বেরিয়ে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন। মির্জা ফখরুল জানান, আগ্রহী প্রার্থীদের ১০ হাজার টাকা দিয়ে মনোনয়নপত্রের ফরম সংগ্রহ করতে হবে। এরপর ১৫ জানুয়ারির মধ্যে আরও ২৫ হাজার টাকাসহ দলের নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জমা দিতে হবে। মনোনয়নপত্র জমা নেয়ার পর ১৮ জানুয়ারি আগ্রহীদের মধ্য থেকে প্রার্থী চূড়ান্ত করে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) জানিয়ে দেবে বিএনপি। এদিকে ওইদিন (১৮ জানুয়ারি) ইসিতে ডিএনসিসির মেয়র পদে উপ-নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। এর আগেই বিএনপি মনোনীত চূড়ান্ত প্রার্থীকে ১ লাখ টাকা জামানত এবং ২৭ হাজার টাকায় ভোটার তালিকার সিডিসহ মনোনয়নপত্র কিনতে হবে। ডিএনসিসির এ উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে ২৬ ফেব্রুয়ারি। ডিএনসিসির উপ-নির্বাচনে নিজেদের প্রার্থী চূড়ান্তকরণের প্রক্রিয়া নির্ধারণে আজ রাত ৯টা ৪০ মিনিটে চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে স্থায়ী কমিটির সঙ্গে বৈঠকে বসেন খালেদা জিয়া। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া বৈঠকে উপস্থিত হওয়ার পর অসুস্থ অনুভব করলে পরে চলে যান। উল্লেখ্য, গত ১ ডিসেম্বর সাবেক মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে ডিএনসিসির মেয়র পদটি শূন্য ঘোষণা করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে নির্বাচন কমিশনকে ভোট গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানানো হয়। সেই পরিপ্রেক্ষিতে এই সিটির ভোটের আয়োজন করছে নির্বাচন কমিশন। বিএনপি নেতাকর্মীরা জানিয়েছেন, দলীয় ফোরামে দু’জনের নামই প্রার্থী হিসেবে ঘুরে ফিরে আসছে। তারা হলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টুর ছেলে তাবিথ আউয়াল, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মেজর অব. কামরুল ইসলাম, দলের বিশেষ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপনসহ প্রকাশনা সম্পাদক শাকিল ওয়াহেদ সুমন প্রমুখ। তাবিথ আউয়াল প্রয়াত আনিসুল হকের সঙ্গেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। পরে অর্ধেক ভোট চলার পর তাবিথ আউয়াল নির্বাচন বর্জন করেন। গতকাল রাতে মেজর অব. আখতারুজ্জামান খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাত করতে যান। তবে সাক্ষাত পাননি। তিনিও মেয়র প্রার্থী হতে চান বলে সাংবাদিকদের জানান। ইত্তেফাক/নূহু