ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

ন্যু ক্যাম্পে মেসিদের সঙ্গে ড. ইউনুস

https://www.jagonews24.com/sports/football/463308
BYস্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক প্রকাশিত: ০৯:০৬ পিএম, ১৪ নভেম্বর ২০১৮

বাংলাদেশের একমাত্র নোবেল জয়ী ড. মোহাম্মদ ইউনুস সাক্ষাৎ করেছেন বিশ্বখ্যাত স্প্যানিশ ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনার বিশ্ব মাতানো ফুটবলার লিওনেল মেসি, জেরার্ড পিকেসহ দলটির অন্য ফুটবলার এবং কর্মকর্তাদের সঙ্গে। এফসি বার্সেলোনা এবং ড. ইউনুসের নিজস্ব ভ্যারিফায়েড ফেসবুক পেজে এ নিয়ে ভিডিও এবং ছবি প্রকাশ করা হয়েছে।

ড. ইউনুসের নিজের পেজে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যাচ্ছে বার্সার হোম গ্রাউন্ড ক্যাম্প ন্যুতে তার সঙ্গে একটি বই হাতে ছবির জন্য পোজ দিয়েছেন লিওনেল মেসি, জেরার্ড পিকে এবং ক্লাবটির ভাইস প্রেসিডেন্ট জর্ডি মেস্ত্রে। ড. ইউনুসের লেখা স্প্যানিশ ভাষায় অনুদিত বইটির নাম ‘আন মুন্ডো ডে ট্রেস সেরোস (Un Mundo de Tres Ceros)।’ ইংরেজিতে অনুবাদ করলে যার অর্থ দাঁড়ায় ‘অ্যা ওয়ার্ল্ড অব থ্রি জিরোস (A World of Three Zeroes)।’

মূলতঃ ড. ইউনুস তার বইটির প্রচারণার জন্যই গেলেন বার্সেলোনার হোম গ্রাউন্ডে। সেখানে একটি সাক্ষাৎকারও দেন তিনি। তার আগে কথা বলেন বার্সা কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে, সহ সভাপতি জর্ডি মেস্ত্রের সঙ্গে। এরপরই একে একে বার্সা ফুটবলাররা এসে সাক্ষাৎ করেন ড. ইউনুসের সঙ্গে। ওই সময়ই মেসির সঙ্গে কথা বলেন ড. ইউনুস। এরপরই বই হাতে ছবির জন্য পোজ দেন তারা। এ সময় ড. ইউনুসের হাতে তার নামাঙ্কিত জার্সি তুলে দেন মেসি এবং পিকেরা।

ড. ইউনুসের ফেসবুক পেজে পোস্ট করা স্ট্যাটাসে লেখা হয়েছে, ‘এফসি বার্সেলোনা ফাউন্ডেশন হচ্ছে বার্সেলোনা সোশ্যাল বিজনেস সিটির পার্টনার। এ কারণেই ড. ইউনুস তার বই নিয়ে সফর করে এলেন ন্যু ক্যাম্পে। স্প্যানিশ ভাষায় বইটি প্রকাশ করেছে পাইডস নামে একটি প্রতিষ্ঠান। স্পেনের বার্সেলোনা, মাদ্রিদ এবং ভ্যালেন্সিয়ায় একযোগে প্রাকশ করা হয়েছে ড. ইউনুসের বইটি। তিনি (ড. ইউনুস) সোশ্যাল বিজনেসে খেলাধুলার প্রভাবকে কাজে লাগানোর জন্য অনেকদুর এগিয়ে গেছেন। এ জন্য তিনি তৈরি করেছেন ইউনুস স্পোর্টস হাব। যার মাধ্যমে খেলাধুলাকে সামাজিকীকরণের কাজ করা হচ্ছে।’

বার্সেলোনার অফিসিয়াল পেজে দেয়া পোস্ট রয়েছে একটি ভিডিও। যেখানে ড. ইউনুস তার বই, এফসি বার্সেলোনায় সফরের লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য নিয়ে কথা বলেছেন। তিনি সেখানে বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রায় সবাই বার্সাকে ভালোবাসে। আমিও সেই কম্যুনিটির একটি অংশ। বাংলাদেশের লক্ষ-কোটি তরুণ বার্সাকে পছন্দ করে। মূলতঃ আমি তাদের হয়েই এসেছি এখানে। তারা সবাই বার্সার খেলা উপভোগ করে। ক্লাবের খেলোয়াড়দের ভালোবাসে এবং তাদেরকে নিজেদের হিরো বলে গণ্য করে।’

এরপরই ড. ইউনুস তার সোশ্যাল বিজনেস এবং এখানে কিভাবে খেলাধুলাকে সম্পৃক্ত করা যায় সে সম্পর্কে কথা বলেছেন।

দেখুন ভিডিও

আইএইচএস/পিআর