ঢাকা, রবিবার, ২০ মে ২০১৮, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

কর্মীদের হামলায় মাসহ ছাত্রলীগ সভাপতি আহত

https://www.jugantor.com/country-news/17660/কর্মীদের-হামলায়-মাসহ-ছাত্রলীগ-সভাপতি-আহত
BY  কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৮:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ
নোয়াখালীতে মাসহ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতিকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ ওঠেছে বাটাইয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় আহত ছাত্রলীগ নেতা এবং তার মাকে প্রথমে কবিরহাট ও পরে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাটাইয়া ইউনিয়নের কাছারিরহাট-ওটারহাট সড়কে এ ঘটনা ঘটেছে।

আহতরা হলেন, কবিরহাট উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম রিয়াদ (২৫) ও তার মা মনোজা খাতুন।

আহত জহিরুল ইসলাম রিয়াদ জানান, সন্ধ্যার দিকে তার মাকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে বাটাইয়া ইউনিয়নের কাছারিরহাট তার নানার বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন। পথে ওটারহাট বাজারসংলগ্ন বাটাইয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন শাহিনের বাড়ির কাছাকাছি এলাকায় পৌঁছলে ছাত্রলীগ নেতা শাহীন ও তার সমর্থকরা জহিরুল ইসলামের মোটরসাইকেল গতিরোধ করে। এ সময় ছাত্রলীগ কর্মীরা রিয়াদকে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ও কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন। তার মা বাধা দিতে গেলে ছাত্রলীগের কর্মীরা তাকেও পিটিয়ে আহত করেন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করেন। জসিম উদ্দিন শাহিন কবিরহাট উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন। কিন্তু দল থেকে তাকে প্রার্থী না দেয়ায় সে এই হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে।

অভিযোগ অস্বীকার করে বাটাইয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন শাহিন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, মঙ্গলবার সকালে তার বড় বোনের বাড়িতে ছিলেন। এ হামলার সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই। তার প্রতিপক্ষের কোনো লোকজন রাজনৈতিকভাবে তাকে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য তার বাড়ির সামনে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। প্রসঙ্গত গত ৬ ফেব্রুয়ারি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান আরমান ও সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত আদনান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জহিরুল ইসলাম রিয়াদকে কবিরহাট উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি করে কমিটি ঘোষণা করা হয়।