ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ২০১৮, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

সিরিয়ায় আবারো হামলা, সব ক্ষেপণাস্ত্র আকাশেই ধ্বংস

https://www.jugantor.com/international/39225/সিরিয়ায়-আবারো-হামলা-সব-ক্ষেপণাস্ত্র-আকাশেই-ধ্বংস
BY  যুগান্তর ডেস্ক    ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৯:০৩ | অনলাইন সংস্করণ
শুক্রবার ভোররাতে সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলার দৃশ্য। যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স ও ব্রিটেন কর্তৃক সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলার সপ্তাহ না গড়াতেই দেশটিতে আবারো ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে।

তবে এবার নিক্ষিপ্ত সব ক্ষেপণাস্ত্র আকাশেই ধ্বংস করেছে সিরিয়ার বিমান প্রতিরক্ষা বাহিনী।

সিরিয়ার সেনাবাহিনী মঙ্গলবার ভোররাতে জানিয়েছে, সে দেশের আশ-শাইরাত ও আদ-দুমাইর বিমানঘাঁটি লক্ষ্য করে নিক্ষিপ্ত ৯টি ক্ষেপণাস্ত্রের সবই আকাশে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। খবর পার্সটুডের।

সিরিয়ার সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে বলেছে, রাজধানী দামেস্কের নিকটবর্তী আদ-দুমাইর বিমানঘাঁটি লক্ষ্য করে তিনটি এবং হোমস প্রদেশের আশ-শাইরাত বিমানঘাঁটি লক্ষ্য করে ছয়টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয় যার সবই ধ্বংস করে দেয় দেশটির ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা।

ওদিকে সিরিয়ার আশ-শাইরাত বিমানঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, সিরিয়ায় এই মুহূর্তে আমেরিকা কোনো সামরিক অভিযান পরিচালনা করছে না।

তবে বিভিন্ন সূত্রে পাওয়া খবর যাচাই-বাছাই করে বিভিন্ন গণমাধ্যম ধারণা করছে, সোমবার রাতের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ইহুদিবাদী ইসরাইল চালিয়ে থাকতে পারে। সিরিয়ার একটি বিমান প্রতিরক্ষা ইউনিট (ফাইল ছবি)

এর আগে গত ১৪ এপ্রিল আমেরিকা, ব্রিটেন ও ফ্রান্স সিরিয়ার বিভিন্ন স্থাপনা লক্ষ্য করে অন্তত ১০০টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। সিরিয়ার পূর্ব ঘৌটা এলাকার দুমা শহরে রাসায়নিক হামলা হয়েছে বলে দাবি করে সে হামলার দায় দামেস্কের ওপর চাপিয়ে দিয়ে ওই হামলা চালানো হয়।

২০১৭ সালে সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশের খান শেইখুনে কথিত রাসায়নিক হামলার দায় দামেস্কের ওপর চাপিয়ে দিয়ে ওই বছরের ৭ এপ্রিল মার্কিন বাহিনী সিরিয়ার আশ-শাইরাত বিমানঘাঁটিতে ৫৯টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছিল।

এর আগে গত শুক্রবার রাতে সিরিয়ায় মুহুর্মুহু ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স ও ব্রিটেন।

সিরিয়ায় আসাদ সরকার কর্তৃক রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের অভিযোগে রাসায়নিক অস্ত্রাগার ধ্বংসের উদ্দেশ্যে ওই হামলা চালানো হয় বলে দাবি করে যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স ও ব্রিটেন।

রাশিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়, শুক্রবার রাতে সিরিয়ায় ১০৩টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়। এর মধ্যে ৭১টি ক্ষেপণাস্ত্র আকাশেই ধ্বংস করে সিরিয়ার প্রতিরক্ষা বাহিনী।