ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮, ৪ কার্তিক ১৪২৬

পেকুয়ার গ্রামে দিনভর তাণ্ডব

http://www.kalerkantho.com/online/2nd-capital/2018/01/14/589246
BYনিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের কাকপাড়া গ্রামে কয়েক ঘণ্টা ধরে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলায় ইউনিয়নটির সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ ইউনুছসহ ১০ জন আহত হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেম আলীর দেহরক্ষী, সাবেক শিবির ক্যাডার ও মগনামা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ ওয়াসিমের নেতৃত্বে গতকাল শনিবার এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার সময় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের বাড়িসহ আরো ছয়-সাতটি বাড়িতেও ব্যাপক ভাঙচুর করেছে সন্ত্রাসীরা।

হামলার ঘটনায় পেকুয়া থানার পুলিশের বিরুদ্ধে নীরব দর্শকের ভূমিকা পালনেরও অভিযোগ উঠেছে। এমনকি গতকাল সকাল থেকে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা যখন সাবেক চেয়ারম্যানের বাড়িতে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছিল, তখন থেকেই কর্মরত সাংবাদিক ও বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তি দফায় দফায় পুলিশকে ঘটনা অবহিত করেন। কিন্তু পেকুয়া থানার পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ রয়েছে।

এলাকার লোকজন জানায়, সন্ত্রাসীরা সাবেক চেয়ারম্যান ইউনুছের বাড়িতে হামলা চালিয়ে পরিবারের সদস্যদের মারধর করে তাঁকে ধরে দিগম্বর করে কালারপাড়া এলাকার নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। সেখানে তাঁকে বেধড়ক পিটিয়ে চোখ তুলে নেওয়ার চেষ্টা চালায়। সন্ত্রাসীদের গুলি ও মারধরে তিনি মাথা, হাত-পা ও চোখে আঘাতপ্রাপ্ত হন। স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. মুজিবুর রহমান বলেন, আহতের অবস্থা গুরুতর। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।