ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ১০ মাঘ ১৪২৫

মধুখালীতে এক রাতে চার বাড়িতে ডাকাতির অভিযোগ

http://www.kalerkantho.com/online/country-news/2018/01/13/589043
BYনিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার কামারখালী ইউনিয়নের রাজধরপুর ও মসলন্দপুর এলাকার চার বাড়িতে গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাতে ডাকাতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। মুখোশপড়া ডাকাতরা নগদ লক্ষাধিক টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ মূল্যবান মালামাল লুটে নিয়েছে।

এ ব্যাপারে কেউ থানায় অভিযোগ করে নি। তবে পুলিশ ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে ১০/১২ জনের মুখোশ পড়া একদল ডাকাত রাজধরপুর গ্রামের রবি দাসের বাড়িতে  হানা নিয়ে নগদ ১০ হাজার টাকাসহ স্বর্ণালংকার লুটে নেয়। পরে ডাকাতরা একই গ্রামের মনোজ কুমার রায়ের বাড়িতে কৌশলে ঢুকে পড়ে। ডাকাতরা গৃহকর্তা মনোজের মাথায় লোহার রড দিয়ে আঘাত করে এবং অন্য সদস্যদের বেঁধে রেখে নগদ ৩০ হাজার টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ  লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে।

এরপর ডাকাত দল পাশের তপন কুমার রায়ের বাড়িতে ঢুকে তার মাথায় ধারালো অসে্ত্রর কোপ দেয়। এতে তপন রায় অচেতন হয়ে পড়ে। ডাকাতরা ওই বাড়ি থেকে দুটি সোনার চেইন, কানের দুল ও দুটি মোবাইল ফোন লুটে নির্বিঘ্নে চলে যায়।এরপর রাত সোয়া দুইটার দিকে ডাকাতরা পাশের মসলন্দপুর গ্রামে কৃষ্ণ রবি দাসের বাড়ি থেকে নগদ টাকা ও মোবাইল ফোনসহ মূল্যবান মালামাল লুটে নেয়। ডাকাতির ঘটনা টের পেয়ে গ্রামবাসী এগিয়ে আসার চেষ্টা করলে ডাকাতরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। ডাকাতদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত তপন রায় বর্তমানে মধুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মধুখালী থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, এ ব্যাপারে আজ শনিবার বিকেল পর্যন্ত কেউ থানায় কোনো অভিযোগ করেনি। তবে বিষয়টি জানতে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে।