ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৬

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় দুইপক্ষের সমর্থকের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ১০

http://www.kalerkantho.com/online/country-news/2018/04/17/626137
BYনিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্যাহর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে ভাঙ্গা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাঠিপেটা ও ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ মঙ্গলবার সকালে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য নিক্সন চৌধুরীর উপজেলার নাসিরাবাদ ইউনিয়নের নবনির্মিত আব্দুল্লাহবাদ-ভদ্রকান্দা আঞ্চলিক সড়ক উদ্বোধন করার কথা ছিল। সেজন্য সকল প্রস্ততি নেওয়া হয়। কিন্তু আওয়ামী লীগ সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্যাহর সমর্থকরা আব্দুল্লাহবাদ বাজার এলাকায় সমবেত হয়। খবর পেয়ে নিক্সন চৌধুরীর সমর্থকরাও সেখানে জড়ো হয়। এর এক পর্যায়ে দুই পক্ষের সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ফাঁকা গুলি ও লাঠিপেটা করে দুই পক্ষের সমর্থকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে কাঞ্চন মেম্বার, সুলতান দফাদার ও কালু মাতুব্বরকে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত অন্যদের ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য নিক্সন চৌধুরী বলেন, আমি সংসদ সদস্য হিসেবে এলাকায় উন্নয়নের কাজ করে যাচ্ছি। কিন্তু দুঃখের বিষয় হচ্ছে আমি যখনই কোনো সভা-সমাবেশ বা উন্নয়নমূলক কাজের উদ্ধোধন করতে যাই। তখনই কাজী জাফরউল্যাহ আমার চলার পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায়। এখন সেটা রুটিনে পরিণত হয়েছে। তবে এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসা প্রয়োজন।

অপরদিকে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ বলেন, ওই সড়ক নির্মাণ প্রকল্পটি সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য স্থপতি এমপি নিলুফার জাফরউল্লাহ'র কোটায় পাওয়া। সুতরাং এলাকার মানুষ সড়কটি তাকে(নিলুফার ) দিয়েই উদ্বোধনের পক্ষে থাকায় আজ তারা নিক্সন চৌধুরীকে বাধা দিয়েছে। নিক্সনের লোকজনই আমার সমর্থকদের ওপর হামলা চালিয়েছে।

এ ব্যাপারে ভাঙ্গা থানার ওসি কাজী সাইদুর রহমান জানান, সড়কটি উদ্বোধনের কথা থাকলেও সংসদ সদস্য নিক্সন চৌধুরী গতকাল সোমবার রাতে কর্মসূচি বাতিল করেন। কিন্তু দুইপক্ষের অতি উৎসাহী সমর্থকরা আজ সকালে ওই স্থানে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাঠিপেটা ও শটগানের ৩২ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে সমর্থকদের ছত্রভঙ্গ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তিনি বলেন, এ ব্যাপারে কেউ আটক হয়নি। কেউ থানায় কোনো অভিযোগ করেনি। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।