ঢাকা, শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৪ আশ্বিন ১৪২৭

কুড়িগ্রামে সাংবাদিক নির্যাতনকারী সেই কর্মকর্তা সাসপেন্ড

https://www.kalerkantho.com/online/country-news/2020/08/11/944290
BYনিজস্ব প্রতিবেদক   

কুড়িগ্রামে সাংবাদিক নির্যাতনকারী কর্মকর্তা নাজিম উদ্দিনকে সাময়িক বরখাস্ত (সাসপেন্ড) করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। কুড়িগ্রাম ডিসি অফিসের সিনিয়র সহকারী কমিশনার থাকার সময় মধ্যরাতে এক সাংবাদিকের ওপর নির্যাতন চালান তিনি। এ ঘটনায় কুড়িগ্রামের ডিসিসহ চার কর্মকর্তাকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত করা হয়। দুই দফা তদন্তে দোষ প্রমাণ হওয়ায় নাজিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বিভাগীয় মামলার প্রথম ধাপে নাজিম উদ্দিনকে সাময়িক বরখাস্ত করে আদেশ জারি হয়েছে। তাঁর সম্পদের হিসাব চাওয়া হয়েছে। পরবর্তী ধাপে তাঁকে কেন স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হবে না জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হবে। এর পরই নাজিমের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে মন্ত্রণালয়।

প্রসংগত, অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামকে গত ১৩ মার্চ মধ্যরাতে বাড়ির দরজা ভেঙে তুলে নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক বছরের জেল দেন নাজিম। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত ১৬ মার্চ কুড়িগ্রামের তৎকালীন ডিসি সুলতানা পারভীন, নাজিম উদ্দিন, রিন্টু বিকাশ চাকমা ও এস এম রাহাতুল ইসলামকে পরবর্তী পদায়নের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত করা হয়। বাকি তিনজনের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের তদন্ত চলছে। দোষ প্রমাণিত হলে তাঁদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে।