ঢাকা, সোমবার, ১৯ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭

সুন্দরবনে কীটনাশক ছিটিয়ে মাছ ধরার সময় আটক ৩

https://www.kalerkantho.com/online/country-news/2020/09/28/960070
BYবাগেরহাট প্রতিনিধি    

সুন্দরবনের খালে কীটনাশক ছিটিয়ে মাছ ধারার সময় তিন জেলেকে আটক করেছে বন বিভাগ।

আজ সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ভোরে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের খুলনা জেলার দাকোপ উপজেলার চাড়ার খাল থেকে ওই তিন জেলেকে হাতেনাতে আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ১২ কেজি বিভিন্ন প্রজাতির মাছ, একটি নৌকা, এক বোতল কীটনাশক এবং একটি করাত জব্দকরা হয়।

আটক জেলেরা হলেন খুলনা জেলার দাকোপ উপজেলার পূর্ব ঢাংমারী গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে বেল্লাল ঢালী (৪০) এবং একই উপজেলার উত্তর কালাবগী গ্রামের বাবর ঢালীর দুই ছেলে মাসুম ঢালী (৩৫) ও মনির ঢালী (৪২)।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন বলেন, একদল জেলে চোরা পথে সুন্দরবনে প্রবেশ করে চাড়াখালী খালে কীটনাশক ছিটিয়ে মাছ ধরছিলেন। বন বিভাগের সদস্যরা নিয়মিত টহল দেওয়ার সময় তাদেরকে হাতেনাতে আটক করেন। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরর প্রস্তুতি চলছে বলে ডিএফও জানান।

কিছু অসাধু জেলে দীর্ঘদিন ধরে চোরা পথে সুন্দরবনে প্রবেশ করে বিভিন্ন নদী-খালে কীটনাশক ছিটিয়ে চিংড়িসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ শিকার করে আসছে। কীটনাশক ছিটানোর কারণে অল্প সময়ের মধ্যে ওই এলাকার নদী-খালের বিভিন্ন প্রজাতির মাছ মরে ভেসে উঠে। ফলে জেলের অল্প সময়ে প্রচুর মাছ ধরতে পারে। কিন্তু কীটনাশক ছিটনানোর কারণে সব ধরনের মাছ ও মাছের রেনু মরে উজাড় হওয়ার উপক্রম হচ্ছে। মাঝেমধ্যে কীটনাশক ছিটিয়ে মাছ ধরার সময় জেলেরা হাতেনাতে আটক হলেও থামছে না কীটনাশক ছিটানো।