ঢাকা, শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ৮ মাঘ ১৪২৭

ঢাকার সব খাল ও নালা যাচ্ছে দুই সিটি করপোরেশনের অধীনে

https://www.kalerkantho.com/online/national/2020/11/26/979706
BYঅনলাইন ডেস্ক   

রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসনে বৃষ্টির পানি নিষ্কাশনের দায়িত্ব ঢাকা ওয়াসার কাছ থেকে দুই সিটি করপোরেশনকে দেওয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ফলে ঢাকা ওয়াসার অধীনে থাকা সব খাল ও নালা এখন ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের হাতে যাবে। এ জন্য সরকার একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটিও গঠন করেছে।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানী ঢাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে খালগুলো ঢাকা ওয়াসার পরিবর্তে সিটি করপোরেশনের অধীনে দেওয়ার বিষয়ে এক পরামর্শ সভায় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তাজুল ইসলাম বলেন, রাজধানীর খালের দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের হাতে দিতে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। এক সময় খালের দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের হাতেই ছিল। পরে কোনো এক সময়ে রাষ্ট্রপতির আদেশে সেটা ঢাকা ওয়াসার হাতে দেওয়া হয়। এখন আমাদের দু’জন মেয়র। তারা খালের দায়িত্ব নেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এ বিষয়ে একটি নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, কাজটা ওয়াসা করুক সেটা আমি রিকমেন্ড করি না। ওয়াসার চেয়ে সিটি করপোরেশন কাজটা ভালো করতে পারবে। তবে এই কাজ করতে গিয়ে ওয়াসার কিছু সক্ষমতা অর্জন হয়েছে। সিটি করপোরেশনের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করা হলে সেই সক্ষমতাও সিটি করপোরেশনের কাছে নেওয়া উচিত।

তিনি আরো বলেন, আমি আগেও বলেছি সিটি করপোরেশন ড্রেনেজ ব্যবস্থা, পানি নিষ্কাশনের জন্য দায়বদ্ধ। কিন্তু রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে ওয়াসার উপর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। দুই সিটির মেয়র চান তারা এটি করলে এটি ভালো করতে পারবেন। ড্রেনেজ সিস্টেমটা সিটি করপোরেশনকে দিতে একটি নীতিগত সিদ্ধান্তে আসতে পেরেছি। এ বিষয়ে একটি নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। এজন্য একটি কমিটিও করেছি, পানিসম্পদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ইব্রাহীমকে প্রধান করে ১২ সদস্য বিশিস্ট একটি কমিটি করা হয়েছে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী তাকসিম এ খান এবং স্থানীয় সরকারের সিনিয়র সচিব হেলালউদ্দিন আহমদ।