ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

জার্মানিতে সরকার গঠনে সমঝোতা

http://www.kalerkantho.com/online/world/2018/01/13/588839
BYকালের কণ্ঠ অনলাইন   

জার্মানিতে নির্বাচনের তিনমাস পেরিয়ে গেলেও এখনো একটি নতুন সরকার গঠিত হয়নি। এ নিয়ে সৃষ্ট রাজনৈতিক অচলাবস্থা তৈরি হয়েছিল, যা টানা ২৪ ঘণ্টার বেশি সময়ের আলোচনায় নিরসন হয়েছে।

দীর্ঘ আলোচনার পর সরকার গঠনের উপায় নিয়ে একমত হয়েছে চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মের্কেলের ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাটস (সিডিইউ) এবং তাদের সাবেক শরিক দল স্যেশাল ডেমোক্র্যাটস (এসপিডি)।

আরো পড়ুন : সামরিক শক্তিতে হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনতে চাইছে জার্মানি

এক সংবাদ সম্মেলনে মের্কেল এবং এসপিডি নেতা মার্টিন শুলৎজ বলেছেন, তারা নতুন মহাজোট গঠনের ব্যাপারে আশাবাদী। স্থিতিশীল একটি কোয়ালিশন সরকার গড়ার জন্য মের্কেলের সামনে এটিই শেষ সুযোগ হিসাবে দেখা হচ্ছে।

মার্টিন শুলৎজের এসপিডি মের্কেলের মধ্য-ডান দলের সঙ্গে গত ১২ বছরের মধ্যে ৮ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকলেও গত সেপ্টেম্বরে জার্মানিতে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে দলটি খারাপ ফল করার পর বিরোধীদলে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছিল।

আরো পড়ুন : জার্মানি ভ্রমণে যে মজার বিষয়গুলো সবারই উপভোগ করা উচিত

কিন্তু মের্কেলের প্রথম দফা জোট গঠনের চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি এসপিডি’র সঙ্গে আলোচনায় বসেন। ‘মহাজোট' গঠন নিয়ে গত ৭ জানুয়ারি শুলৎজের সঙ্গে নতুন করে প্রাথমিক আলোচনা শুরু করেন মের্কেল।

প্রথম দফায় মের্কেল চেষ্টা করছিলেন উদারপন্থি ফ্রি ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এফডিপি) এবং গ্রিন পার্টির সঙ্গে জোট গঠন করতে। কিন্তু সে আলোচনা নভেম্বরে ব্যর্থ হয়৷ কারণ, এফডিপি নেতা আলোচনা থেকে সরে যান।

সবশেষ মের্কেলের জন্য এসপিডি'র সঙ্গে আলোচনার পথটাই খোলা ছিল৷ আর এসপিডি'ও এ সুযোগ হাতছাড়া করেনি৷

জার্মানিতে অভিবাসনের মতো বিষয় নিয়েও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের বিবাদ রয়েছে। তবে এ বিষয়গুলোতেও দুপক্ষ সমঝোতায় পৌঁছাতে পেরেছে বলে জানা গেছে। সূত্র : বিবিসি