ঢাকা, সোমবার, ২৫ জুন ২০১৮, ১১ আষাঢ় ১৪২৬

কিম-ট্রাম্প বৈঠকে পাওয়া উপহার খুলতে ভয় সাংবাদিকদের!

http://www.kalerkantho.com/online/world/2018/06/14/647936
BYকালের কণ্ঠ অনলাইন   

সোমবার ডোনাল্ড ট্রাম্প আর কিম জং উনের বৈঠক ঘিরে উত্তেজনা ছিল তুঙ্গে। সেই বৈঠক কভার করতে যাওয়া সাংবাদিকদের উপহার হিসেবে দেওয়া হয়েছে ইউএসবি ফ্যান। আর সেই উপহারে হাত দিতেই ভয় পাচ্ছেন সবাই। ম্যালওয়্যার নয় তো?

কেউ কেউ এব্যাপারে সতর্ক করেছেন রিপোর্টারদের। তাঁরা যেন ল্যাপটপে না লাগান, সে ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে। কারণ ইউএসবি ডিভাইসে ম্যালওয়্যার থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এদিন সাংবাদিকদের উপহারের একটা কিট দেওয়া হয়। যাতে ছিল একটা ব্র্যান্ডেড পানীয় জলের বোতল, একটি লোকাল গাইডবুক ও ওই ইউএসবি ফ্যান। ডাচ জার্নালিস্ট হারাল্ড ডোরনবস ওই ফ্যানের একটি ছবি ট্যুইট করেছেন। মিটিং চলাকালীন সিঙ্গাপুরের তাপমাত্রার পারদ চড়েছিল ৩৩ডিগ্রিতে।

সাইবার সিকিউরিটি এক্সপার্ট প্রফেসর অ্যালান উডওয়ার্ড বলেন, ‘মেশিনের সফটওয়্যারের নিরাপত্তা ভাঙতে ইউএসবি-ই নয়া অস্ত্র। যদি একবার নিজের কম্পিউটারে এটা অ্যাকসেস করতে দাও, তাহলে আর এটা তোমার কম্পিউটার থাকবে না।’

যদিও এই উপহারের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার কোনও যোগ নেই। পুরোটাই অ্যাসেম্বল করা হয়েছে সিঙ্গাপুরে। তবে যেহেতু উত্তর কোরিয়ার এই ধরনেরকার্যকলাপের উদাহরণ রয়েছে, তাই বিষয়টা গুরুত্ব দিয়ে দেখছে সাইবার এক্সপার্টরা।

গত বছর বিশ্বের একটি বড়সড় অংশে সাইবার হামলা চালানোয় নাম উঠে এসেছিল উত্তর কোরিয়ার। এক গোপন রিপোর্ট থেকে এও জানা গিয়েছিল যে, এবার ভারতের উপর হামলা করতে চলেছে কিম জং উনের দেশ। তাও আবার যেখানে সেখানে নয়, একেবারে মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র ইসরোতে হামলা চালানোর ছক কষছে উত্তর কোরিয়া। এর আগে Sony-র ওয়েবসাইট হ্যাক করেছিল উত্তর কোরিয়া।

মঙ্গলবার সিঙ্গাপুরে বহু প্রতীক্ষিত বৈঠকে বসেন দুই রাষ্ট্রনেতা ডোনাল্ড ট্রাম্প ও কিম জং উন। সেনটোসা দ্বীপের ক্যাপেল্লা হোটেলে সৃষ্টি হয় ইতিহাস। বৈঠক শেষে দুই দেশের সর্বাধিনায়কের শরীরী ভাষাই বুঝিয়ে দিয়েছে এদিনের বৈঠক কতটা ইতিবাচক হয়েছে। বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাগজে নাকি সই করেছেন তাঁরা। অতীত ভুলে দুই দেশকেই নতুন করে শুরু করার বার্তা দিয়েছেন কিম। ট্রাম্পও পাল্টা আশ্বাসের বাণী শুনিয়েছেন, পরমানু নিরস্ত্রীকরণের কাজ শুরু হবে খুব শিগগিরি। আসলে পরমানু অস্ত্র নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা একেবারেই যে নাপসন্দ উত্তর কোরিয়ার শাসক কিমের।