ঢাকা, রবিবার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬

নানীর মাধ্যমে ৫ মিনিটেই করোনা সংক্রমণ নাতনীর শরীরে!

https://www.kalerkantho.com/online/world/2020/02/22/877584
BYকালের কণ্ঠ অনলাইন   

করোনাভাইরাসের আতঙ্কে রয়েছে চীনসহ পুরো বিশ্ব। প্রাণঘাতি এই ভাইরাসের প্রাদূর্ভাব ঘটেছে তাইওয়ানেও। দেশটিতে এখন পর্যন্ত অন্তত ২৬ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

তাইওয়ানের সেন্ট্রাল এপিডেমিক কমান্ড সেন্টার (সিইসিসি) শনিবার এ তথ্য জানিয়েছে।

সিইসিসি জানিয়েছে, তাইওয়ানে করোনাভাইরাসেআক্রান্ত চব্বিশতম ব্যক্তি একজন প্রবীণ নারী। পরীক্ষার পর জানা গেছেযে, এই বৃদ্ধার মাধ্যমে তার নাতনীর দেহে করোনাভাইরাসের (সিওভিআইডি-১৯) সংক্রমণ ঘটেছে। তারা দুজন মাত্র পাঁচ মিনিট একসঙ্গে সময় ব্যয় করেছিলেন।

বৃহস্পতিবার উত্তর তাইওয়ানের ৬০ বছর বয়সী এক নারীকে করোনাভাইরাসের চব্বিশতম রোগী হিসাবে ঘোষণা করা হয়। কিন্তু তিনি গত দু'বছরবিদেশে ভ্রমণ করেননি।

এর পরের দিন করোনাভাইরাসে ২৫ ও ২তম আক্রান্ত হিসেবে বৃদ্ধার এক মেয়ে এবং তার নাতনীকে ঘোষণা দেওয়া হয়।

ওই প্রবীণ নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে মেয়ে তার সঙ্গে বসবাস করা শুরু করেন।

কিন্তু নাতনী কেবলমাত্র ১১ ফেব্রুয়ারীপাঁচ মিনিটের জন্য হাসপাতালে বৃদ্ধার সঙ্গে দেখা করেছিলেন। এরপরই তার শরীরে পরীক্ষা চালানো হলে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি মেলে।

সিএনএ জানিয়েছে,১৩৪ জন মেডিকেল কর্মী যারা ওই হাসপাতালে ছিলেন তাদের পরীক্ষার নির্দেশ দিয়েছে সিইসিসি।

সংস্থাটি বলছে, ১৩৪ জন মেডিকেল কর্মীর সকলের দেহে ভাইরাস পরীক্ষার ফলাফল 'নেগেটিভ' হয়েছে বা কারো দেহেই ওই ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেনি।

এদিকে, সংক্রমণের সম্ভাব্য উত্স অনুসন্ধান অব্যাহত রেখেছে সিইসিসি।

এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া রোগীদের সংস্পর্শে থাকা লোকজনদের অন্তর্ভুক্ত করতে পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

সূত্র : তাইওয়ান টাইমস