ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
BYঅনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ:  ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:২৯ | আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:৩১

বেগম খালেদা জিয়ার নামে এতিমের টাকা চুরি মামলায় আগামী দুই তিন মাসের মধ্যে রায় হবে। রায়ে তিনি সাজাও পেতে পারেন আবার বেকসুর খালাসও পেতে পারেন। তবে ব্যাংক থেকে এতিমের টাকা সরানোর যতেষ্ট প্রমাণ আছে। আমার ধারণা তার সাজা হবে।

খালেদা জিয়ার সাজা হলে একদিনের জন্য হলেও তাকে জেলে যেতে হবে। সাজার পরে বেগম খালেদা জিয়া যদি উচ্চ আদালত আপিল করেন আর হাইকোর্ট যদি বেগম খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত করে তাহলে তিনি আগামী নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করতে পারবেন বলে মন্তব্য করেছেন জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি।

রোববার দিনব্যাপী কুষ্টিয়ার মিরপুর বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। আগামী জাতীয় নির্বাচন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, বিএনপি ভোট করবে কি করবে না সেটা বিএনপি’র ব্যাপার। আমরা সংবিধান অনুযায়ী ভোট করব আর সে ভোটে বিএনপি অংশ গ্রহণ না করে যদি বাধাগ্রস্থ করে তাহলে অন্ধারের যে শক্তি আছে অর্থাৎ আরমি ক্ষমতা নিয়ে নেবে।

আর আরমি ক্ষমতা নিলে আপনি বেগম খালেদা জিয়া লাথ্থি ঝাটা খাবেন। তাহলে বেগম খালেদা জিয়া সিদ্ধান্ত নেন এসরকারের অধীনে ভোট করবেন না আরমিদের দ্বারা লাথ্থি ঝাটা খাবেন। মন্ত্রী আরো বলেন, বেগম খালেদাকে জামায়াত ও জঙ্গিবাদের সঙ্গ ত্যাগ করতে হবে।

এব্যাপারে সামান্যতম ছাড় দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস.এম জামাল উদ্দিন আহমেদ, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মহাম্মদ আব্দুল্লাহ, মিরপুর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার নজরুল করিম, উপজেলা জাসদের সভাপতি মহাম্মদ শরীফ, সাধারন সম্পাদক আহাম্মদ আলী, মিরপুর থানার তদন্ত অফিসার আজিজুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।