ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
BY  অনলাইন ডেস্ক ০৭ অক্টোবর ২০১৮, ১২:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

সম্পর্ক এমন একটা বিষয় যাতে না জড়ালে একজন ব্যক্তি একাকিত্বে ভোগেন। যাদের জীবনে কেউ থাকে না তারা এক প্রকার প্রাণহীন জীবনযাপন করেন। আবার যাদের জীবনে প্রেম থাকে, নানা অসংগতির কারণে তাদের সম্পর্কে অনীহা কাজ করে।

আমাদের অনেকে সম্পর্ক গড়ার জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করেন। অনেকে আবার স্বাধীনতা হরণ হবে ভেবে সম্পর্ক থেকে দূরে থাকেন। বিশেষ করে একজন পুরুষের জীবনে এই বিষয়গুলো বেশি কাজ করে। তাদের ধারণা বা ভাবনায় সম্পর্কের বিষয়টি একেক সময় একেক রকম। অনেক পুরুষই চান জীবনে একা থাকতে।

মার্কিন অধ্যাপক ও মনোবিজ্ঞানী লিসা ফায়ারস্টোন দীর্ঘদিন ধরে পুরুষের মধ্যে সম্পর্কের বিষয়টি কিভাবে কাজ করে তা নিয়ে একটি সমীক্ষা চালিয়েছেন। ‘ইভলিউশনারি সাইকোলজিকাল সায়েন্স’ জার্নালে প্রকাশিত তার ওই সমীক্ষায় দেখা গেছে, মোট ছয়টি কারণে পুরুষের জীবনে সম্পর্কের ক্ষেত্রে তারতম্য দেখা যায়। যে কারণে তারা একা থাকতে চান।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সমীক্ষা চালিয়ে ২০ হাজারেরও বেশি ‘সিঙ্গেল’ পুরুষের মতামত সংগ্রহ করে একা থাকতে চাওয়ার এই ছয়টি কারণ বের করেছেন মার্কিন ওই অধ্যাপক। এগুলো হলো-

১. আত্মবিশ্বাসের অভাব : পুরুষের সম্পর্কে জড়ানোর ক্ষেত্রে মূলত আত্মবিশ্বাসের অভাব বড় বাধা হয়ে দাঁড়ায়। তাই তারা একা থাকতে চান।

২) সম্পর্কে এগিয়ে যাওয়া : অনেকে বলেছেন, সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে তারা খুব বেশি মাথা ঘামাতে চান না।

৩) সম্পর্ক ভেঙে যাওয়া : অনেকে তাদের ভেঙে যাওয়া সম্পর্ককে কারণ হিসেবে দেখিয়েছেন এবং তারা যে নারীদের আর বিশ্বাস করতে পারেন না, সেটাও বলেছেন।

৪) উচ্চতা, বর্ণ : সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ৬৬০ জনেরও বেশি অংশগ্রহণকারীর উত্তর ছিল— তারা দেখতে ভালো নয় বলে একা থাকতে চান।

৫) ইচ্ছা : অনেকে বলেছেন, সম্পর্ক গড়তে তাদের কোনো রকম ইচ্ছেই নেই।

৬) জড়তা : সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ কারণ, অনেক পুরুষই নাকি ‘ফ্লার্ট’ করতে পারেন না। তারা খুবই ইন্ট্রোভার্ট ও লাজুক। তাই মেয়েদের সঙ্গে কথা বলার ক্ষেত্রে জড়তা অনুভব করেন। তাই একা থাকতেই বেশি পছন্দ করেন তারা।