ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৭

ব্যথামুক্ত প্রসব কি মা ও শিশুর জন্য নিরাপদ?

https://www.jugantor.com/lifestyle/143343/ব্যথামুক্ত-প্রসব-কি-মা-ও-শিশুর-জন্য-নিরাপদ
BY  যুগান্তর রিপোর্ট ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:১৭ | অনলাইন সংস্করণ
মা ও শিশু। ছবি সংগৃহীত সম্প্রতি বিভিন্ন রাজধানীর হাসপাতালে ব্যথামুক্ত প্রসব করানো হচ্ছে। তবে এই ব্যথামুক্ত প্রসব কী মায়েদের জন্য নিরাপদ। এছাড়া মা ও সন্তানের কোনো ঝুঁকি আছে কি? এ নিয়ে প্রশ্নের শেষ নয়। অনেক পাঠক যুগান্তরকে বার্তা পাঠিয়েছেন।ব্যথামুক্ত নরমাল ভ্যাজাইনাল ডেলিভারি

প্রাকৃতিকভাবে সন্তান প্রসবের সময় যে সকল নার্ভসমূহ ব্যথার অনুভূতি হয় তা ব্যথানাশক ওষুধ দিয়ে অবশ করে দেওয়া হয়।তাই মায়ের খুব একটা ব্যথা অনুভূত হয় না।এছাড়া এ সময় হাঁটাচলা করতে পারে।এই প্রক্রিয়াটির নাম এপিডুরাল এনালজেসিয়া।

ব্যথামুক্ত প্রসব সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানিয়েছেন ডেলটা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক ডা. নুসরাত জাহান এমবিবিএস,এফসিপিএস(অবস-গাইনী)।

ডা. নুসরাত জাহান যুগান্তরকে বলেন,স্বাভাবিক নিয়মে প্রসবের সময় জরায়ুর মুখ যখন চার থেকে পাঁচ সেন্টিমিটার খুলে যাবে এবং রোগী যদি ব্যথা সহ্য করতে না পারে তখন অবশ করার প্রক্রিয়া শুরু হয়।

এ সময় মেরুদণ্ডের ভেতরে একটি প্লাস্টিকের ক্যাথেটার প্রবেশ করানো কিছুক্ষণ পর স্পাইনাল কর্ডের এপিডুরাল স্পেসে ব্যথানাশক ওষুধ দেয়া হয়।

ব্যথামুক্ত প্রসবের কিছু সুবিধা রয়েছে উল্লেখ্য করে তিনি বলেন, প্রক্রিয়ার যেসব রোগীরা প্রসব ব্যথা সহ্য করতে পারতো না। তার এখন প্রসব ব্যথা সহ্য করতে পারবে। এতে মা ও শিশু সিজারজনিত জটিলতা থেকে মা মুক্ত থাকবে।

ব্যথামুক্ত প্রসব নিরাপদ উল্লেখ্য করে এই চিকিৎসক বলেন, ব্যথামুক্ত প্রসবের যে প্রক্রিয়া ডাক্তাররা মায়েদের কষ্ট কমাতে করে থাকেন। তাতে তেমন কোনো সুবিধা নেই। এই প্রক্রিয়া মা ও শিশুর জন্য নিরাপদ।

এই প্রক্রিয়ায় কোনো সমস্যা রয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই প্রক্রিয়ায় মা যেহেতু পুশ করতে পারেন না তাই সময় বেশি লাগে। এছাড়া প্রক্রিয়াটি ব্যয়বহুল বটে।তবে এনালজেসিয়ার কারণে সবজাতকের শ্বাসকষ্টের কোন আশংকা নেই।

গাইনীজনিত যে কোনো সমস্যায় পরামর্শের জন্য যোগাযোগ করতে পারেন ডা. নুসরাত জাহানের সঙ্গে।যোগাযোগ:০১৯২৪০৮৭৮৩১।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-[email protected]-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]