ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯, ৬ আষাঢ় ১৪২৭

ইফতারে কেন খাবেন ইসবগুলের ভুসির শরবত?

https://www.jugantor.com/lifestyle/179212/ইফতারে-কেন-খাবেন-ইসবগুলের-ভুসির-শরবত
BY  লাইফস্টাইল ডেস্ক ১৯ মে ২০১৯, ১৭:১০ | অনলাইন সংস্করণ
ইসবগুলের ভুসির শরবত? ছবি সংগৃহীত ইসবগুলের ভুসির অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে। কোষ্ঠকঠিন্য, পেট পরিষ্কার , আমাশয়, ইউরিনে জ্বালাপোড়াসহ বিভিন্ন সমস্যায় খেতে পারেন ইসবগুলের ভুসির শরবত।

রোজা রাখলে অনেকের প্রস্রাবের জ্বালাপোড়া হয়। ইসবগুলের ভুসি খেলে প্রস্রাবের জ্বালাপোড়া কমবে এবং ইউরিনের রং স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

হাতে, পায়ে জ্বালাপোড়া ও মাথা ঘোরানো রোগে আখের গুড়ের সঙ্গে ইসবগুলের ভুসি মিলিয়ে সকাল-বিকাল এক সপ্তাহ খেলে অনেক উপকার পাওয়া যাবে।

এছাড়া রোজায় সুস্থ থাকতে ইফতারে খেতে পারেন ইসবগুলের ভুসির শরবত।

আসুন জেনে নেই কীভাবে তৈরি করবেন ইসবগুলের ভুসির শরবত।
উপকরণ

তোকমা দুই চা চামচ, ইসবগুলের ভুসি দুই চা চামচ, ফ্রেস অ্যালোভেরা ১/২ কাপ, রুহ আফজা ১/২ কাপ, মধু দুই টেবিল চামচ, লবণ-এক চিমটি, সবুজ ফুড কালার- ইচ্ছানুযায়ী ১/২ ফোঁটা, ঠাণ্ডা পানি ১/২ লিটার, লেবুর রস ১টি লেবুর, আইস কিউব ১০/১৫টি, চিনি স্বাদমতো, পুদিনা পাতা ৩/৪টি।

প্রণালী

১/২ কাপ পানিতে তোকমা এবং এক কাপ পানিতে ইসবগুলের ভুসি ভিজিয়ে ১/২ ঘণ্টা রাখুন। ইসবগুলের ভুসির সঙ্গে রুহ আফজা মিশিয়ে গ্লাসে ঢেলে দিন। ভেজানো তোকমার সঙ্গে মধু মিশিয়ে ইসবগুলের ভুসির ওপর ঢালুন। অ্যালোভেরা জেল বের করে সবুজ ফুড কালার, লেবুর রস ও সামান্য চিনি মিশিয়ে তোকমার ওপরে ঢালুন। পরিবেশনের আগে ঠাণ্ডা পানি, পুদিনা পাতা ও আইস কিউব মিশিয়ে দিন।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-[email protected]-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]