ঢাকা, শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮, ৮ বৈশাখ ১৪২৫
BY  লাইফস্টাইল ডেস্ক ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৮:০৬ | অনলাইন সংস্করণ
কেন বই পড়বেন বই মানুষের জীবনের শ্রেষ্ঠ সঙ্গী, বই হাসায়, কাঁদায়, তবে কখনো একা ফেলে রেখে যায় না। নিয়মিত বই পড়ার অভ্যাস খুবই ভালো। বই আপনার চিন্তার জগৎকে প্রসারিত করে। অনেক ক্ষেত্রে বাড়িয়ে দেবে আপনার জ্ঞান। বই হচ্ছে মানুষের সেই বন্ধু যে কখনো ক্ষতি করে না। আপনার বিভিন্ন সমস্যায় বইয়ের জ্ঞান আপনাকে অনেক কঠিন সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে।

বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তির যুগে বই পড়ার অভ্যাস হারিয়ে যাচ্ছে। বেশির ভাগ মানুষ ফেসবুক, ইমু, হায়াটসঅ্যাসহ, ভিডিও গেইমসহ বিভিন্ন বিষয়ে নিয়ে ব্যস্ত থাকছে। প্রযুক্তিতে যেমন বাদ দেয়া যাবে না। তেমনি বই পড়ার অভ্যাসটা ত্যাগ করা যাবে না। বই আপনার অজ্ঞতার প্রাচীর ডিঙিয়ে জ্ঞানের আলোয় আপনাকে করবে আলোকিত। আত্মা করবে পরিশুদ্ধি। তাই বেশি করে বই পড়ুন।

আসুন জেনে নেই কেন বই পড়বেন।নতুন জ্ঞান অর্জন

আপনি জানেন কি পৃথিবীতে অধিকাংশ মানুষেরই প্রিয় শখ হলো বই পড়া। এর মাধ্যমেই অনেকে নিজ ক্যারিয়ার খুঁজে পেয়েছেন এবং জীবনে বেশ সাফল্যমণ্ডিত হয়েছেন। তাই নিয়মিত বই পড়লে আপনি অনেক অজানা বিষয় জানতে পারবেন।

জ্ঞানের পাল্লা ভারি

বই আপনার জ্ঞানের পাল্লা ভারি করবে। বই পড়লে আপনি এমন কিছু বিষয় জানতে পারবেন, যা বই না পড়লে সম্ভব না। বই আপনার চিন্তার জগৎকে প্রসারিত করে আপনাকে আরও পথ দেখাবে।

আত্মবিশ্বাস আত্মোন্নয়ন

বই আপনার আত্মবিশ্বাস আত্মোন্নয়ন ঘটাবে।বই পড়ার মাধ্যমে আপনি নতুন এক সত্তায় রূপান্তরিত হয়ে বিশ্বকে আরও গভীরভাবে জানতে ও বুঝতে পারতেন। আত্মবিশ্বাস এবং আত্মোন্নয়নের ওপর অনেক বই আছে, যেগুলো পড়ে খুব সহজেই সাফল্যের নতুন এক দ্বার খুঁজে পেতে সক্ষম হবেন। অনেক অজানা তথ্যও আপনি বই পড়ার মাধ্যমে জানতে পারবেন।

বোঝার ক্ষমতা

বই পড়ার ফলে আপনার চোখ খুলে যাবে। আপনি সহজে মানুষ ও আশপাশের সব বুঝতে পারবেন ও স্পষ্ট ধারণা পোষণ করতে পারবেন। নতুন কোনো স্থান, প্রাণী কিংবা ঐতিহ্য সম্পর্কে খুব সহজ একটি ধারণা পেতে পারেন বই পড়ে। যে কোনো বিষয়ের সত্যতাও খুব সহজে উপলব্ধি করতে পারবেন বই ঘেঁটে। জীবনের যে কোনো নিয়মকানুন, আচার-ব্যবহার জানতে পারবেন এর মাধ্যমে।

কাজের প্রস্তুতি নেয়া

যে কোনো সমস্যায় মানুষের কাছে সাহায্যের প্রার্থনা না জানিয়ে বইয়ের মাধ্যমে খুব সহজেই সমাধান পেয়ে যাওয়া সম্ভব। যেমন—নতুন কিছু রান্না করার আগে মেনু পড়ে নিন, প্রযুক্তির কোনো সামগ্রী ব্যবহার করার আগে ম্যানুয়াল ভালোমতো পড়ে নিন। এসব ব্যবহারই আপনাকে সাহায্য করবে নতুন কোনো কাজ শুরু করার ক্ষেত্রে।

কল্পনাশক্তি

বই মানুষের কল্পনাশক্তিতে শান দেয়।বই পড়ার মাধ্যমে আপনার কল্পনাশক্তির বৃদ্ধি ঘটে এবং এটি প্রমাণিত হয় যে পৃথিবীতে কোনো কিছুই অসম্ভব নয়। পড়ার মাধ্যমে আপনি জীবনে একদম অন্যরকম দ্বার খুলে ফেলতে সক্ষম হবেন।এছাড়া মনের মধ্যে জেগে ওঠা অজানা যে কোনো প্রশ্নের উত্তরও নিমিষেই পেয়ে যেতে পারেন বই পড়ে।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন[email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]