ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ৩ কার্তিক ১৪২৬

অনশন অব্যাহত রাখার ঘোষণা মাদ্রাসা শিক্ষকদের

http://dainikamadershomoy.com/bangladesh/120927/অনশন-অব্যাহত-রাখার-ঘোষণা-মাদ্রাসা-শিক্ষকদের
BY  নিজস্ব প্রতিবেদক ১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১৮:৫৫ | আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের আশ্বাস প্রত্যাখান করেছেন অনশনরত স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা। জাতীয়করণের দাবির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সাড়া না দেওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি অব্যহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

জাতীয়করণের দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আমরণ অনশনরত স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকদের দাবি-দাওয়ার বিষয়টি নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষকনেতারা। শনিবার দুপুর ৩টায় কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগে মন্ত্রীর কক্ষে এই বৈঠকে শিক্ষকদের পক্ষে অংশ নেন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির সভাপতি কাজী রুহুল আমিন চৌধুরী ও মহাসচিব কাজী মোখলেসুর রহমানসহ ২০ থেকে ২৫ জন শিক্ষক।

বৈঠকে মাদ্রসা শিক্ষকদের দাবির বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তুলে ধরা হবে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ শিক্ষকদের কর্মসূচি প্রত্যাহারের আহ্বান জানান। এই তীব্র শীতের মধ্যে আর কষ্ট না করার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আপনাদের দাবি ও সমস্যা যথাযথভাবে আমরা প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরবো। আপনারা ঘরে ফিরে যান।

কিন্তু শিক্ষামন্ত্রীর এই আশ্বাসে সন্তুষ্ট না হয়ে কবে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করা হবে এবং কবে তাদের দাবি পূরণ হবে সেই বিষয়ে সুনির্দিষ্ট ঘোষণার দাবি করেন শিক্ষকরা। এসময় শিক্ষামন্ত্রীর সুনির্দিষ্ট কোনো ঘোষণা না থাকায় তার আহ্বান প্রত্যাখান করে কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন অনশনকারী মাদ্রাসার শিক্ষকরা।

এদিকে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির সভাপতি কাজী রুহুল আমিন চৌধুরী আমাদের সময়কে জানান, শিক্ষামন্ত্রী আশ্বাসের নামে প্রহসন করছেন। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাদের দাবির বিষয়ে ঘোষণা চাই। ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত আমাদের কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

এদিকে আজ ষষ্ঠ দিনের মতো আমরণ অনশন করছেন মাদ্রাসা শিক্ষকরা। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের নিবন্ধিত সব স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা জাতীয়করণের দাবিতে ১ জানুয়ারি থেকে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছিলেন তারা। কিন্তু দাবি পূরণ না হওয়ায় ৯ জানুয়ারি থেকে আমরণ অনশন শুরু করেন।

দুপুর সোয়া ১২টার দিকে অনশনস্থলে গিয়ে দেখা যায়, প্রচণ্ড শীতের মধ্যে মাদ্রাসা শিক্ষকরা খোলা আকাশের নিচে অনশন পালন করছেন। অসুস্থ অনেককে স্যালাইন নিয়ে সেখানে শুয়ে থাকতে দেখা গেছে। আরেক পাশে পুরো শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা। বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজো ফোরামের ডাকে পঞ্চম দিনের মতো এই কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। সংগঠনটির নেতারা জানিয়েছেন, আজ থেকে তারাও আমরণ অনশন শুরু করবেন।