ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

অভিযান শেষে যা বললেন র‌্যাব মুখপাত্র

https://www.dhakatimes24.com/2020/10/26/188955/অভিযান-শেষে-যা-বললেন-র‌্যাব-মুখপাত্র
BYনিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস

মদ্যপান ও ওয়াকিটকি ব্যবহার করায় ঢাকা-৭ আসনের সাংসদ হাজী সেলিমের ছেলে ডিএসসিসির কাউন্সিলর ইরফান মো. সেলিমকে একবছরের কারাদণ্ড দিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। হাজী সেলিমের সোয়ারিঘাটের বাড়িতে অভিযান শেষে সোমবার সন্ধ্যায় এক ব্রিফিংয়ে র‌্যাবের মুখপাত্র লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ সাংবাদিকদের একথা জানিয়েছেন।

র‌্যাব মুখপাত্র আশিক বিল্লাহ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আজ সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ও ফৌজদারি মামলা হওয়ায় সেখানে র‌্যাব-৩ ও র‌্যাব-১০ এই অভিযান পরিচালনা করে।

তিনি বলেন, অভিযান চলাকালে ডিএসসিসির ৩০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইরফান মো. সেলিমের বাসায় একটি লাইসেন্সবিহীন বিদেশি পিস্তল, একটি এয়ারগান, ৩৮টি ওয়াকিটকি, ৫টি ভিপিএস মেশিন, একটি হ্যান্ডকাফ, পাঁচ লিটার বিদেশি মদ, ৪০০ পিস ইয়াবা ও ১২টি বিয়ারের বোতল পাওয়া যায়। সেখানে একটি টর্চার সেলের সন্ধ্যা পাওয়া যায় বলেও জানান তিনি। র‌্যাব মুখপাত্র আরও বলেন, তার কাছে যে ওয়াকিটকি সেট ও নিয়ন্ত্রণ মেশিনগুলো পাওয়া গেছে সেগুলো দিয়ে ৫ থেকে ১০ কিলোমিটার নেটওয়ার্কে কথা বলা যায়। র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও জানান, অভিযানে ভিআইপিদের নিরাপত্তায় ব্যবহৃত একটি ব্রিফকিসও পাওয়া গেছে।

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধরে আগে কেন এই অভিযান পরিচালনা করা হলো না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে আশিক বিল্লাহ বলেন, এই অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে অপরাধীর বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ও ফৌজদারি মামলার হওয়ারে কারণে।’

মদ্যপান ও ওয়াকিটকি ব্যবহার করায় র‌্যাবের ম্যাজিস্ট্রেট এমপি হাজি সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমকে ছয় মাস করে এক বছর ও তার দেহরক্ষী জাহিদুল ইসলামকেও এক বছরে কারদণ্ড প্রদান করেন। সেলিমের পুত্রের বিরুদ্ধে অবৈধ অস্ত্র ও মাদক রাখার দায়ে র‌্যাব দুটি মামলা দায়ের করবে বলে উল্লেখ করেন আশিক বিল্লাহ।

(ঢাকাটাইমস/২৬অক্টোবর/এসআর/ইএস)