ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৬

শাকির দেওয়ানের গানের প্রকাশনা উৎসব

https://www.jagonews24.com/national/news/456636
BYসায়েম সাবু সায়েম সাবু , জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক প্রকাশিত: ০৮:৩৮ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০১৮

লেখক, গবেষক, গীতিকার শাকির দেওয়ানের লেখা গান নিয়ে প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। রাজধানীর হাতিরপুলে লেজারভিশন ভবনে এই উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় ‘শাকির দেওয়ানের গান’ শীর্ষক প্রকাশনার মোড়ক উন্মোচন করবেন লোকশিল্প গবেষক ড. সাইমন জাকারিয়া। অনুষ্ঠানে সংগীত পরিচালক মিল্টন খন্দকারসহ অনেক সঙ্গীতাজ্ঞ উপস্থিত থাকবেন।

শাকির দেওয়ানের লেখা গানে অ্যালবামটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন- হালের জনপ্রিয় শিল্পী আরিফ দেওয়ান, আজাদ দেওয়ান মুক্তি, অনিমা মুক্তি গোমেজ, শারমিন, আতিকুর রহমান, পূর্ণচন্দ্র রায়, সাগর দেওয়ান, নিপা এবং মোখলেস দেওয়ান।

ঢাকার অদূরে কেরানীগঞ্জের বিখ্যাত দেওয়ান পরিবারে জন্ম শাকির দেওয়ানের। বংশ পরম্পরায় শৈশব থেকেই সংগীত চর্চায় মনোনিবেশ করেন তিনি। জীবনের নানা ডালে ভর করলেও সংগীত সাধনাই মূল উপজীব্য হয়ে উঠছে তার। তিনি একাধারে লিখছেন, সুর দিচ্ছেন, গাইছেন। আবার লোকসংস্কৃতির প্রধানতম শাখা সংগীত নিয়ে গবেষণাও করছেন।

কর্মজীবনের শুরুতে শিক্ষকতা পেশায় প্রবেশ করেছিলেন শাকির দেওয়ান। স্থির হতে পারেননি। এরপর ব্যাংকিং পেশায়। সেখানেও জীবন চাকা বেঁকে যায়। কিছুদিন সাংবাদিকতাও করেন। শেষ পর্যন্ত থিতু হওয়া হয়নি কোনটিতেই। যে চৌকাঠের সীমানায় সুরের এত ঝংকার, তা রেখে বেতালে মন বাঁধে কে!

শাকির দেওয়ানও হারাতে চাননি সুরের সীমানা। লেখক গবেষক গীতিকার ও নাট্যকার পরিচয় শাকির দেওয়ানের। চতুষ্টয় পরিচয়ের গণ্ডি ছাপিয়ে শুধু গীতি কবির পরিচয়ে বেঁচে থাকতে চান তিনি। লিখছেন মৌলিককারে। সুরেও ঠিক তাই। গাইছেন পাঁজর খুলে। তার লেখা কবিতাতেই গানের রূপায়ন। আবার গানেই কবিতার ছন্দভাব। মূল পরিচয় গীতিকবি হলেও শিল্প-সাহিত্যের অন্য শাখায়ও বিচরণ সমানতালে। কুড়িটিরও অধিক গ্রন্থের প্রণেতা শাকির দেওয়ান রচিত 'গদাই ডাক্তার, প্রেতাত্মার আকুতিসহ বেশ কয়েকটি নাটকও টেলিভিশনে প্রচারিত হয়েছে।

এছাড়াও তার দ্বৈরথ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটি পুরস্কৃত ও প্রশংসিত হয়। শাকির দেওয়ান রচিত আধুনিক পল্লী ও বিচ্ছেদি ধারার গান খ্যাতিমান সুরকার আতিকুর রহমান, আরিফ দেওয়ান, আজাদ মুক্তি দেওয়ান, অনিমা মুক্তি গমেজ, চ্যানেল আই আড়ং বাংলার গান চ্যাম্পিয়ন শারমিন, সাগর দেওয়ান, পূর্ণচন্দ্র রায় প্রমুখ শিল্পীর কণ্ঠে গীত হয়ে লোকের ভালো লাগায় স্থান করে নিয়েছে।

শাকির দেওয়ান সৃষ্ট ‘তুমি প্রিয় চির নতুন আমার অনুভবে’, ‘কালা আমায় ছাইড়া গেছে’, ‘এখনো কি খোঁজো আমায় শরতেরই লেখায়’, ‘নিঠুর বন্ধুরে, নিদয় বন্ধুরে কলঙ্কিনী হইলাম আমি তোরে দিয়া মন’, ‘আর কতোকাল করবা দয়াল অভাগারে ছলনা’ প্রভৃতি গান এখন লোকের মুখে মুখে।

পাঁচ শতাধিক গানের এ স্রষ্টা নিজে গান করার পাশাপাশি টিভি অনুষ্ঠান গ্রন্থনা ও উপস্থাপনা করেন।

এএসএস/এমআরএম/পিআর