ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৭

ফোনে কী করছেন জানালেই অর্থ দেবে ফেসবুক!

https://www.ntvbd.com/tech/256115/ফোনে-কী-করছেন-জানালেই-অর্থ-দেবে-ফেসবুক!
BYঅনলাইন ডেস্ক
১২ জুন ২০১৯, ১৫:২৫

আপনি স্মার্টফোনে কী করছেন, সে তথ্য কিনবে ফেসবুক। ‘স্টাডি’ নামে নতুন একটি অ্যাপ দিয়ে ফোন ব্যবহারকারীরা কী করছেন, তা পর্যবেক্ষণ করবে ফেসবুক। এর জন্য ব্যবহারকারীকে অর্থও দেবে এই সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট। কারো ফোনে এই অ্যাপ ইনস্টল করা হলে সেটি ওই ব্যক্তি কোন অ্যাপ কত সময় ধরে ব্যবহার করেছেন, তিনি কোন দেশের নাগরিক ইত্যাদিসহ ফোনের অন্যান্য অ্যাপের তথ্যও জানতে পারবে।

তবে ফেসবুকের দাবি, ব্যবহারকারীর মেসেজ, পাসওয়ার্ড বা তিনি কোন ওয়েবসাইটে ঢুঁ মারছেন, সেসব জানতে পারবে না এই অ্যাপ।

প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট দ্য ভার্জের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এর আগেও ফেসবুক ব্যবহারকারীদের তথ্য জানার জন্য ফেসবুক রিসার্চ নামে একটি অ্যাপ তৈরি করেছিল। আইফোনের জন্য তৈরি করা হয়েছিল অ্যাপটি। তবে অ্যাপলের কয়েকটি নির্দেশমালা ভঙ্গ করায় এ বছরের জানুয়ারিতে অ্যাপটি তুলে নেয় ফেসবুক।

ওই ঘটনার পর ফেসবুক ‘স্টাডি’ নামে নতুন অ্যাপটি চালু করায় বোঝা যাচ্ছে, মানুষ কীভাবে ও কোন কাজে তার ফোনটি ব্যবহার করছে, সে তথ্য জানা ফেসবুকের জন্য জরুরি। একই সঙ্গে এটাও বোঝা যাচ্ছে, আগের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়েছে ফেসবুক।

‘স্টাডি’ অ্যাপটি কেবল প্রাপ্তবয়স্করা, অর্থাৎ ১৮ বছরের বেশি বয়সীরাই ফোনে ইনস্টল করতে পারবেন। অ্যাপটি শুধু অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম-চালিত ফোনের জন্য তৈরি করা হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ব্যবহারকারীরা কোন অ্যাপকে কত বেশি তথ্য জানতে দিতে চান, সেটি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। এই অ্যাপ ইনস্টল করার সময় ব্যবহারকারীর ফোনের পর্দায় ভেসে উঠবে, ঠিক কী ধরনের তথ্য অ্যাপটি সংগ্রহ করবে। এ ছাড়া সংগ্রহ করা তথ্য কী কাজে ব্যবহার করা হবে, সেটিও জানাবে ‘স্টাডি’ অ্যাপ।

ফেসবুকে ব্যবহারকারীর উল্লেখ করা বয়স অনুযায়ী ‘স্টাডি’ অ্যাপ ইনস্টল করা ব্যক্তিটি প্রাপ্তবয়স্ক কি না, তা যাচাই করা হবে। এ ছাড়া কেউ ‘স্টাডি’ অ্যাপ থেকে অর্থ রোজগার করতে চাইলে তাঁর পেপ্যাল অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে। পেপ্যালে অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য কমপক্ষে ১৮ বছর বয়স হতে হয়।

তবে এসব তথ্য জানতে ব্যবহারকারীকে কী পরিমাণ অর্থ দেবে কিংবা কী কাজে সংগ্রহ করা তথ্য ব্যবহার করা হবে, সে বিষয়ে জানাতে চায় না ফেসবুক। প্রাথমিকভাবে যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতে অ্যাপটি চালু করবে ফেসবুক। তবে সবার জন্য এই ‘স্টাডি’ অ্যাপ উন্মুক্ত করা হচ্ছে না। আপনি অ্যাপটি ইনস্টল করতে পারবেন কি না, তা ফেসবুকই আপনাকে বিজ্ঞাপন দিয়ে জানাবে।