ঢাকা, শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭, ২ পৌষ ১৪২৪
BYনিজস্ব প্রতিবেদক
০৬ ডিসেম্বর ২০১৭, ২১:৪৫

দেশে চলছে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০১৭ নামের তথ্য প্রযুক্তি প্রদর্শনী। এর পাশাপাশি আগামীকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীতে শুরু হচ্ছে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে অস্কারখ্যাত আরেক চমক ‘অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা-২০১৭ ’ । ৪০০ বিদেশি অতিথি নিয়ে তথ্য প্রযুক্তির এত বড় আন্তর্জাতিক আয়োজন বাংলাদেশে প্রথম।বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ও ১৭ তম অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা ২০১৭ এর আহ্বায়ক রাসেল টি আহমেদ বলেন, এ আয়োজনের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অগ্রগতি এবং বাংলাদেশে বিনিয়োগের সম্ভাবনা ও সুবিধাগুলো বিশ্বের সামনে তুলে ধরার একটা বিরাট সুযোগ পাওয়া যাবে। আগে আমাদের এ ধরনের আয়োজনের সক্ষমতা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন করত। এবারে আমাদের সক্ষমতা তুলে ধরার সুযোগ এসেছে। আমরা পেশাদার ও অতিথি পরায়ণ জাতি হিসেবে পরিচয় তুলে ধরতে চাইছি। এ জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

রাসেল টি আহমেদ বলেন, বাংলাদেশে তথ্য প্রযুক্তির সম্ভাবনা ও উন্নয়ন দেখে দেশ ছাড়ার সময় বিদেশিরা যেন ‘ওয়াও’ বলতে পারে তার ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশকে তাঁদের সামনে সুন্দর দেশ হিসেবে ব্র্যান্ডিং করতে রাজধানীর র‍্যাডিসন হোটেলে বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে। ৮ ও ৯ তারিখে এ প্রতিযোগিতার বিচারকাজ চলবে। ১০ তারিখে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বিশেষ আয়োজনে পুরস্কার দেওয়া হবে।

সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের তত্ত্বাবধানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) যৌথভাবে ৭ থেকে ১০ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে।

এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বৃহত্তম সংগঠন এশিয়া প্যাসিফিক আইসিটি অ্যালায়েন্স (অ্যাপিকটা)। এ অঞ্চলের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নের পাশাপাশি সম্ভাবনাময় ও সফল উদ্যোগ, সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সেবার স্বীকৃতি দিতে প্রতিবছর অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসের আয়োজন করে থাকে। প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

২০১৫ সালে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) অ্যাপিকটার সদস্যপদ লাভ করে। সদস্য হওয়ার পর বাংলাদেশে দুবার কার্যনির্বাহী কমিটির সভা হয়েছে। ২০১৬ সালে প্রথমবারের মতো অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসে অংশ নিয়ে বাংলাদেশ পুরস্কারও জিতেছে। সদস্যপদ পাওয়ার মাত্র ২ বছরের মধ্যে অর্থাৎ, নবীনতম সদস্য হিসেবে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস এর এই আয়োজন অ্যাপিকটার ইতিহাসে প্রথম।

রাসেল টি আহমেদ বলেন, ১৬টি দেশ থেকে ৪০০ বিদেশি অতিথিদের নিয়ে এ ধরনের আয়োজন বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের জন্য প্রথমবারের মতো ঘটনা। তাদের নিরাপত্তার পাশাপাশি আবাসনের জন্য নির্ধারিত হোটেলগুলোতেও বিশেষ নিরাপত্তা ও হেল্প ডেস্ক এর ব্যবস্থা রয়েছে। টেলিটকের সহযোগিতায় তাদের বিনা মূল্যে ইন্টারনেটসহ সিম প্রদান করা হচ্ছে। উবারের সহযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের ভ্রমণ সহজ ও নিরাপদ করা হচ্ছে। আয়োজনকে উৎসবমুখর করতে বিশেষ পদক্ষেপও নেওয়া হয়েছে। আমন্ত্রিত প্রতিযোগীদের নিয়ে ওয়েলকাম রিসেপশন, বাংলাদেশ নাইট ও হংকং নাইট অনুষ্ঠিত হবে। ১০ ডিসেম্বর বিকেলে ১৭ তম অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা ২০১৭ এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ ছাড়াও অ্যাপিকটার সদস্য দেশগুলো হলো অস্ট্রেলিয়া, ব্রুনেই দারুসসালাম, চীন, চীনা তাইপে, হংকং, ইন্দোনেশিয়া, জাপান, ম্যাকাও, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, পাকিস্তান, সিঙ্গাপুর, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম। অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ আয়োজন সম্পর্কে http://apicta.org.bd/ ওয়েবসাইট থেকে বিস্তারিত জানা যাবে।

x