ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৬

২০২৫ সাল নাগাদ বৈশ্বিক কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বাজার দাঁড়াবে ৩৮ হাজার কোটি মার্কিন ডলারে। এর মধ্যে ৯০ শতাংশই এন্টারপ্রাইজ মার্কেট থেকে আসবে বলে জানিয়েছেন চীনা প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের এক কর্মকর্তা।

হুয়াওয়ে কানেক্ট ২০১৮ সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে মূল বক্তব্য উপস্থাপনের সময় প্রতিষ্ঠানটির প্রধান বিপণন কর্মকর্তা উইলিয়াম শু বলেন, স্বাভাবিকভাবেই আমরা বিশ্বাস করি, আগামী দশকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সফলতা শিল্প খাতে প্রয়োগের ওপর নির্ভর করবে। আগামী তিন বছরে ১০ লাখ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে কাজ করা ডেভেলপার ও সহযোগীদের বিভিন্নভাবে সাহায্য করার পরিকল্পনা করেছে হুয়াওয়ে। তবে পুরো শিল্প খাতকে ডিজিটাল করার প্রক্রিয়াটি কোনো প্রতিষ্ঠান একা করতে পারবে না। এ খাতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

আইএএনএসের প্রতিবেদনে বলা হয়, হুয়াওয়ের বিপণন বিভাগের কর্মকর্তা প্রতিষ্ঠানের কৌশল সম্পর্কে বলেছেন, হুয়াওয়ে একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করবে, যা এ খাতে বিভিন্ন সংস্থাকে একত্রে আনা হবে। এর নাম হবে জিআইও প্ল্যাটফর্ম। এতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মধ্যে যোগাযোগ ও সহযোগিতার সুযোগ থাকবে।

হুয়াওয়ের কর্মকর্তা বলেন, প্ল্যাটফর্ম, এআই ও ইকোসিস্টেমের মধ্যে সম্পর্ক তৈরি করা হবে। এতে বুদ্ধিমান বিশ্বের আগমন দ্রুততর হবে। প্রযুক্তির শক্তি ও মানুষের দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা শিল্পে অনেক উদ্ভাবন সম্ভব। এ ক্ষেত্রে মানুষের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার মূল্য অনেক। এগুলোকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় রূপান্তর করতে হবে।