ঢাকা, সোমবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬
BYআন্তর্জাতিক ডেস্ক|  ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২৩:১২ | আপডেট : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২৩:২১

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের একটি আদালতে স্যামসাংয়ের ‘গ্যালাক্সি নোট ৯’ স্মার্টফোন বিস্ফোরণের ঘটনায় মামলা করেছেন এক নারী। এছাড়া আদালতে তিনি এই ফোন বিক্রি বন্ধের আদেশ দেয়ার দাবি জানিয়েছেন।

অঙ্গরাজ্যটির কুইনস সুপ্রিম কোর্টে লং আইল্যান্ডের রিয়েল এস্টেট এজেন্ট ডিয়ানে চুং মামলাটি করেছেন বলে জানিয়েছে জানিয়েছে ‘নিই ইয়র্ক পোস্ট’।

মামলার নথিতে তিনি উল্লেখ করেন, ২০১৬ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার এই কোম্পানির বেশ কয়েকটি ‘গ্যালাক্সি নোট ৭’ স্মার্টফোন বিস্ফোরিত হয়। আর এজন্য তখন প্রায় ২৫ লাখ ফোন নষ্ট করতে বাধ্য হয় এই কোম্পানি।

নিজের ‘গ্যালাক্সি নোট ৯’ স্মার্টফোন বিস্ফোরিত হওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে চুং বলেন, গত ৩ সেপ্টেম্বর মধ্যরাতে আমি সাগর তীরবর্তী একটি ভবনের লিফটে থাকা অবস্থায় আমার ফোনটি অস্বাভাবিক মাত্রায় গরম হয়ে যায়। এরপর আমি ফোনটি বন্ধ করে আমার ব্যাগের ভেতর রাখি।

তিনি বলেন, কিছুক্ষণ পর আমি হুইসেলের মতো একটা শব্দ শুনতে পাই এবং ব্যাগ থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখি। আমি ব্যাগটি লিফটের মেঝেতে রেখে সেটি খালি করতে গিয়ে আমার হাত পুড়ে যায়। ------------------------------------------------------------------ আরও পড়ুন : ৯৯৯৯ টাকায় শাওমির রেডমি৬এ! ------------------------------------------------------------------

এই বিষয়ে ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য সানকে দেয়া এক বিবৃতিতে ঘটনার কথা স্বীকার করেছেন স্যামসাংয়ের একজন মুখপাত্র। তিনি বলেন, এটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা এবং এই ধরনের আর কোনও অভিযোগ আমরা পাইনি। তবু আমরা ঘটনাটি তদন্ত করছি। আমরা কাস্টমারের নিরাপত্তার বিষয়টি খুব গুরুত্ব দিয়ে থাকি।

উল্লেখ্য, গত ২৪ আগস্ট এক হাজার ডলারের এই স্মার্টফোন উন্মুক্ত করার সময় স্যামসাংয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কোহ ডং-জিন বলেন, এর ব্যাটারি অন্য যেকোনো প্রতিষ্ঠানের ফোনের ব্যাটারির চেয়ে নিরাপদ।

ব্যবহারকারীরে এই ফোনের ব্যাটারি নিয়ে কোনও দুশ্চিন্তা করতে হবে না বলেও সেসময় উল্লেখ করেন তিনি। আরও পড়ুন :

কে/ এসএস