ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৬

ডিফেন্ডারদের রাতের ঘুম হারাম করবে যারা

http://bdsaradin.com//ডিফেন্ডারদের-রাতের-ঘুম-হ/
BYখেলার মাঠে | ২০১৮, জুন ১২ ১০:৩৭ পূর্বাহ্ণ

বিশ্বকাপে যেই দলের ডিফেন্স যত মজবুত সেই দেশেরই সম্ভাবনা থাকে বিশ্বকাপ ভালো কিছু করার। কিন্তু এবারের ডিফেন্ডারদের সামনে রয়েছে কঠিন পরীক্ষা। কেননা বিশ্বের সব বড় বড় তারকাদের ঠেকিয়ে দিতে তাদেরকে দিতে হবে সেরা খেলাটা।

চলুন দেখি নেই ডিফেন্ডারদের বড় চ্যালেঞ্জ কারা হতে পারেন।

গ্রপ এ

উরুগুয়ে

উরুগুয়ে দলের সুয়ারেজ অন্য দল গুলোর বিপক্ষে মাথা ব্যাথার কারন হয়ে দাঁড়াতে পারেন। বার্সেলোনার হয়ে অসম্ভব ভাল একটি মৌসুম কাটিয়েছেন তিনি। সেরা লিগের সেরা খেলোয়াড়দের একজন তিনি। তাই তাঁকে আটকাতে রাশিয়া, সৌদি ও মিশরের ডিফেন্ডারদের আলাদা ভাবে পরিকল্পনা সাঁজাতে হবে।

মিশর

মোহাম্মদ সালাহ মিশরের ত্রাণকর্তা বলা যেতে পারে। তাঁর হাত ধরেই বিশ্বকাপে খেলার জায়গা করে নেয় মিশর। লিভারপুলের এই ফরওয়ার্ড রয়েছেন দুর্দান্ত ফর্মে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এই মৌসুমে গোলের বন্যায় ভাসিয়েছেন দলকে। সেই সঙ্গে হয়েছেন লিগের সেরা গোল দাতা ও সেরা খেলোয়াড়। মিশরের সালাহকে আটকাতে হলে উরুগুয়ে সহ সৌদি ও রাশিয়াকে আলাদা ভাবে ম্যাচের আগে ছক কষতেই হবে।

গ্রুপ বি, পর্তুগাল

পর্তুগালের গ্রুপে স্পেন পড়লেও রোনালদোর মতন মহাতারকা রয়েছেন এই গ্রপে। নতুন ভাবে তাঁকে নিয়ে বলার কিছু নেই। ক্লাবের হয়ে এই মৌসুমে জয় করলেন চ্যাম্পিয়নস লিগ। চ্যাম্পিয়নস লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতাও তিনি। তিনি যে কতটা ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারেন দলের জন্য সেটা সবারই জানা। স্পেনের বিপক্ষে তাঁর ক্লাবের অধিয়ানক, স্পেন ও রিয়াল মাদ্রিদের এক মাত্র ডিফেন্সের সেনাপতি রামোস তাঁকে কিভাবে আটকায় এটাই এখন দেখা পালা। একদিকে স্পেনের রয়েছে বিশ্বের সেরা ডিফেন্ডাররা। অন্যদিকে রোনালদো হচ্ছেন ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়দের একজন।

গ্রুপ সি, ফ্রান্স

ফ্রান্স দলের পুরো আক্রমন ভাগ বলতে গেলে আতোঁয়ান গ্রিজমান ও কিলিয়ান এমবাপের উপর নির্ভরশীল। বিশ্বকাপের আগে ক্লাবের হয়ে দুর্দান্ত এক মৌসুম কাটিয়েছেন এই দুজন। ফ্রান্স দল অস্ট্রেলিয়া, পেরু ও ডেনমার্কের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে খেলবে। এই তিনদেশের ডিফেন্ডাররা যে তাদের নিয়ে আলাদা ভাবে পরিকল্পনা করবে সেটা অবশ্য বলার অপেক্ষা রাখে না।

গ্রুপ ডি, আর্জেন্টিনা

কাগজে কলমে সবচেয়ে শক্তিশালী অ্যাটাকিং দল হচ্ছে আর্জেন্টিনা। কারন আগুয়েরা, হিগুয়াইন, দিবালা, ডি-মারিয়া সহ ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়দের একজন লিওনেল মেসি রয়েছেন। মেসি তাঁর খারাপ দিনেও অন্য সবার থেকে ভাল খেলে থাকেন। আগুয়েরা, হিগুয়াইনদের মতন বড় বড় তারকা থাকার পরও মেসির দিকে ডিফেন্ডারদের আলাদা নজর থাকবে সেটা অবশ্য বলার অপেক্ষা রাখে না। বিশ্বের কম ডিফেন্ডারই রয়েছেন তাঁকে পুরো ৯০ মিনিট আটকে রাখতে পারেন। আইসল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া ও নাইজেরিয়া মেসিকে নিয়ে ম্যাচের আগে অবশ্যই আলাদা ভাবে পরিকল্পনা করেই মাঠে নামবে।

গ্রুপ ই, ব্রাজিল

ব্রাজিল দলে রয়েছেন জেসুস, কৌতিনহ সহ ফিরমিনহো। সেই সঙ্গে রয়েছেন পিএসজির মূল তারকা ব্রাজিলিয়ন প্রিন্স নেইমার। নেইমারের দুর্দান্ত গতি, সেই সঙ্গে ড্রিবলিং করার ক্ষমতা যে কোন ডিফেন্ডারদের জন্য ভৌতিক একটা ব্যাপার। নেইমার ইনজুরিতে পড়ে অনেকদিন ধরে মাঠের বাইরে ছিলেন। ইনজুরি থেকে ফিরেছেন চেনা রুপেই। প্রস্তুতি ম্যাচে গুলোতেও গোল পেয়েছেন। শুধু নেইমার না জেসুস, কৌতিনহ, ফিরমিনহো সবাই গোল পাচ্ছেন। তাই তাদের আটকাতে সার্বিয়া, কোস্টারিকা ও সুইজারল্যান্ড কিভাবে পরিকল্পনা করে সেটাই দেখার বিষয়।

গ্রপ এফ, জার্মানি

জার্মানি দলের মূল একাদশ সাজানো হয়েছে মূলারকে ঘিরেই। তিনি জার্মানির হয়ে দুর্দান্ত খেলছেন। প্রস্তুতি ম্যাচগুলোতে দলের জন্য সেরা পারফর্মেন্স করেছেন। মূলার ছাড়াও ওয়ার্নার, রেউস ডিফেন্ডারদের জন্য বিপদের কারন হয়ে দাঁড়াতে পারে।

গ্রপ জি, বেলজিয়াম

রাশিয়া বিশ্বকাপের ডার্ক হর্স বলা হচ্ছে এবারের বেলজিয়ামকে। লুকাকু, হেজার্ড ও ডিব্রুয়েনাকে নিয়ে দুর্দান্ত এক দল গড়েছে বেলজিয়াম। সবাইকে ছাড়িয়ে হেজার্ডের দিকে সবার চোখ থাকবে। চেলসির হয়ে দারুণ একটি মৌসুম কাটিয়েছেন তিনি।

ইংল্যান্ড

ইংল্যান্ড দলের মূল শক্তি হচ্ছে হ্যারি কেইন। টোটেনহ্যাম দলের অন্যতম স্ট্রাইকার তিনি। এবারে মৌসুমে বেশ কয়েকটি হ্যাট্রিক করে বিশ্বকাপের আগে রয়েছেন দুর্দান্ত ফমে। ডিফেন্ডাররা যে তাঁর কারনে বেশ ভুগবে সেটা তাঁর ক্লাব পারফর্মেন্স দেখে বলে দেয়া সম্ভব। তাঁকে আটকাতে হলে ডিফেন্ডার করতে হবে কঠিন পরিকল্পনা।

গ্রপ এইচ, কলম্বিয়া

এই দলের মূল আকর্ষণ গত বিশ্বকাপে দুর্দান্ত খেলে রীতিমত তারকা বনে যাওয়া হামেস রদ্রিগেজ। তিনি কলোম্বিয়া দলের মূল কাণ্ডারি। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে তিনি সবসময় ভয়ংকর হয়ে উঠেন। তাঁকে বিশ্বকাপের আসরে আটকাতে হলে বেশ শক্ত কৌশল নিয়েই মাঠে নামতে হবে ডিফেন্ডারদের।

Share this: