ঢাকা, বুধবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৮, ৯ কার্তিক ১৪২৬
BY  ক্রীড়া ডেস্ক ১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:৪৮ | অনলাইন সংস্করণ

বার্সেলোনা ও লিওনেল মেসি যেন একে অপরের পরিপূরক। বার্সেলোনা ছাড়া মেসিকে যেন অন্য কোনো ক্লাবে কল্পনাই করা যায় না। মেসি বার্সেলোনা ছাড়লেও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে দেখতে চাইবেন না তার সমর্থকরাও। ২০১৩ সালে লিওনেল মেসিকে কিনতে চেয়েছিল রিয়াল। এমনটাই দাবি করছে জার্মান পত্রিকা ‘দেল স্পাইগেল’।

মেসি-রোনালদোকে নিয়ে এমন গুজব চললেও এবার জোর দাবি জানিয়েছে গণমাধ্যমটি। তবে এ খবর গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা। দেল স্পাইগেল তাদের রিপোর্টে বলছে, ‘গ্যারেথ বেলকে কেনার আগে মেসির দিকেই নজর দিয়েছিল রিয়াল। সে সময়ে মেসির রিলিজ কজের ২৫০ মিলিয়ন ইউরো দিয়েই তাকে দলে নেওয়ার কথা বলা হয়েছিল।’

পত্রিকাটি বলছে, এ ব্যাপারে নাকি মেসি, রিয়াল প্রেসিডেন্ট ফোরেন্টিনো পেরেজ ও দুই পরে আইনজীবীদের মাঝে একটি গোপন বৈঠকও হয়েছিল নিজস্ব বিমানে! মেসির তৎকালীন আইনজীবী ইনগো জুয়ারেজ মেসির বাবাকে আশ্বস্ত করেছিলেন যে, মেসি রিয়ালে গেলে ওই সময় তার বিরুদ্ধে চলা কর ফাঁকির মামলা তুলে নেওয়ার জন্য রিয়ালের পক্ষ থেকে স্প্যানিশ প্রধানমন্ত্রীকে প্রস্তাব দেওয়া হবে। শেষ পর্যন্ত দুই পক্ষের সম্মতি না হওয়ায় বার্সাতেই থেকে যান মেসি।

মূলত ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে দেওয়ার সম্ভাবনা থেকেই নাকি মেসিকে কেনার প্রস্তাব দিয়েছিল। রিয়াল ভেবেছিল, ম্যানসিটি বড় অঙ্কের বিনিময়ে কিনে নিতে পারে রোনালদোকে। সুতরাং তাদের একজন আইকন প্রয়োজন। এ কারণেই মেসির সঙ্গে দলের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হয়েছিল বলে দাবি গণমাধ্যমটির।