ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৬

রাশিয়া বিশ্বকাপে সেরা আক্রমণভাগ কোন দলের?

http://dainikamadershomoy.com/sports/142310/রাশিয়া-বিশ্বকাপে-সেরা-আক্রমণভাগ-কোন-দলের
BY  স্পোর্টস ডেস্ক ১১ জুন ২০১৮, ১৭:১৩ | অনলাইন সংস্করণ

ফিফা বিশ্বকাপে দেখা মেলে কিছু অবিশ্বাস্য ফুটবলারের। যারা মাঠে নিজেদের উজাড় করে দেন দেশের জন্য। এবারের বিশ্বকাপ এখনো শুরু হয়নি, কিন্ত কাগজে- কলমে চলছে কাটা-ছেঁড়া। জার্মানি, ব্রাজিল, ইংল্যান্ড, স্পেন ও ফ্রান্স এবার অনেক শক্তিশালী খেলোয়াড় দিয়ে দল গড়েছে। তারা ইতিমধ্যে মাঠে নিজেদের সামর্থ্য দেখিয়েছেন বেশ ভালোভাবেই। কিন্ত সেরা আক্রমণভাগ কোন দলের?

‘স্পোর্টসকিডা’ অবলম্বনেআমাদের সময়বিশ্বকাপ আয়োজনে আজ থাকছে বিশ্বকাপের সেরা আক্রমণভাগ নিয়ে।

যখন আক্রমণভাগের কথা উঠে আসে, তখন আর্জেন্টিনার কথাই বলতে হয় সবার আগে। অন্য দেশগুলোর তুলনায় আলবিসেলেস্তেদের আক্রমণভাগ পরীক্ষিত। দক্ষিণ আমেরিকার দেশটির আক্রমণভাগের নেতৃত্বে থাকবেন লিওনেল মেসি। তার সঙ্গে আছেন ডি মারিয়া, সার্জিও আগুয়েরো, গঞ্জালো হিগুয়াইন ও পাউলো দিবালা।

আক্রমণভাগের এই তারকারা নিজেদের ক্লাবের হয়ে দেখিয়েছেন নজরকারা পারফরম্যান্স। মুখের কথা কিংবা নাম দেখে নয়। পরিসংখ্যানও কথা বলে আর্জেন্টিনার হয়ে। এ মৌসুমে বার্সার হয়ে মেসি ৪৪ গোল করেছেন। আগুয়েরো ম্যানসিটির হয়ে দিয়েছেন ৩০ গোল। এ ছাড়া হিগুয়াইনের পা থেকে আসে ২৩ গোল, দিবালার ২৪ এবং ডি মারিয়া দেন ১৯ গোল।

এ আক্রমণ দিয়ে মেসিরা ঘুম হারাম করে দিতে পারেন প্রতিপক্ষের কোচ-খেলোয়াড়দের। তারা জ্বলে উঠলে মেসিদের হাতে কাপ দেখাটা অপ্রত্যাশিত কিছু না।

এ ছাড়া ভাগ্য গড়ে দিতে পারেন মেসিও। মেসিকে চেনারূপে দেখা গেল ঘটতে পারে অনেক কিছুই। মেসির মতো সুপারস্টার থাকা আর্জেন্টিনার জন্য আশীর্বাদ। কারণ তিনি শুধু গোল করেন না, সতীর্থদের দিয়ে করানও। ২০১৪ তে শিরোপার কাছাকাছি গিয়েও পারেননি। গোল দেওয়ার সুযোগ কয়েকবার পেলেও কোনো এক অজানা কারণে সেদিন জাল খুঁজে পায়নি মেসির শট।

৩১-এ পা দেওয়া মেসির জন্য এবারই হতে পারে শেষ বিশ্বকাপ। তাই মেসিও পেতে মরিয়া বিশ্ব ফুটবলের সবচেয়ে বড় ট্রফিটি। ১৬ জুন আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে মেসিদের বিশ্বকাপ মিশন।