ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯, ৬ আষাঢ় ১৪২৭
BYআবদুর রাজ্জাক
১২ জুন ২০১৯, ১১:৪৮

বৃষ্টির ওপর কারও নিয়ন্ত্রণ নেই। কালকের ম্যাচটা হলে বাংলাদেশের জন্য খুবই ভালো হতো। আমার কাছে মনে হয় আমাদের কাজটা একটু কঠিন হয়ে গেল। আমাদের ভাগ্যটা খারাপ বলতেই হবে। আবার এসব ম্যাচ খেলা একটু কঠিন হয়। ইংলিশ কন্ডিশন, একটু পরপর বিরতি দিয়ে খেলতে হবে, একটু খেলা হলে আবার কিছুক্ষণ পর দেখা যাবে আবার বৃষ্টি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় অনেকেই ভাবছে বাংলাদেশের ২০১৯ক্রিকেট বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলার আশা শেষ। আমি কোনোভাবেই এমন কিছু ভাবছি না। সব ম্যাচের হিসাব–নিকাশ তো একবারে করে ফেলা যায় না। আর এখনই বেশি দূর চিন্তা করাও ঠিক হবে না। ম্যাচ বাই ম্যাচ চিন্তা করাই উচিত। আর সামনে আমাদের যতগুলো ম্যাচ আছে, সবই বড় ম্যাচ। বিশ্বকাপের মঞ্চে কোনো ছোট-বড় ম্যাচ নেই, সবই বড় ম্যাচ। আমাদের জন্য বিশ্বকাপের শুরু থেকে প্রতিটি ম্যাচই ডু অর ডাই অবস্থা। বলেকয়ে সব কটা ম্যাচ জিতে যাবে বাংলাদেশ, এমন অবস্থায় পৌঁছে যায়নি বাংলাদেশ। প্রতিটি ম্যাচেই সমান গুরুত্ব দিয়ে খেলতে হবে।

বাংলাদেশ দল পরের ম্যাচের আগে ছয় দিন সময় পাবে। ক্রিকেটাররা যথেষ্ট সময় পাবে বিশ্রাম নেওয়ার। ক্রিকেট থেকে দূরে কিছু সময় কাটিয়ে ঝরঝরে মানসিকতা নিয়ে ফিরতে পারবে। এমন লম্বা টুর্নামেন্টে মাঝেমধ্যে ক্লান্তি ধরে যায়। ম্যাচের মাঝে বিরতি থাকলে আবার চাঙা হয়ে ফেরার সুযোগ থাকে।

সাকিবের চোটের খবর পেলাম। পরের ম্যাচের আগে সময় পাওয়ায় সুবিধাই হলো বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্টের। সাকিবের ফিটনেস নিয়ে শঙ্কা থাকলে তত দিনে সুস্থ হয়ে ওঠার কথা।

এবারের বিশ্বকাপে মাশরাফির পারফরম্যান্স নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে। মাশরাফির নিজেকে প্রমাণ করার কিছু নেই। দলের জন্য মাশরাফি বোঝা হয়ে গেছে, এমন ভাবা উচিত হবে না। একজন ক্রিকেটারের এমন হতেই পারে। চার বছর ধরে প্রতিটা ম্যাচে অবদান রেখে আসছে মাশরাফি। এখন বয়স হয়ে গেছে, ফিটনেসে সমস্যা, তাই প্রতি ম্যাচ ভালো খেলতে হবে? এটা তো কারও পক্ষেই সম্ভব না। উইকেট পাওয়াটা ভাগ্যের ব্যাপার। হতে পারে একটু খারাপ সময় যাচ্ছে। খারাপ সময় বলতে, উইকেটটা পাচ্ছে না। এমন কি একজন ক্রিকেটারের জীবনে হতে পারে না? বয়স হয়েছে বিধায় প্রতি ম্যাচে ভালো করতে হবে, এমন যুক্তি আমার কাছে গ্রহণযোগ্য না। অন্য দলেও তো সবাই তো প্রতিদিন ভালো করছে না।

মাশরাফির অবদান পারফরম্যান্সে বিচার করলে চলবে না। আমরা হয়তো চোখে দেখি না, দলের প্রত্যেকের সঙ্গে ওর সম্পর্ক, সেটা অতুলনীয়। প্রত্যেক ক্রিকেটারের জন্য মাশরাফির গুরুত্ব অপরিসীম।