ঢাকা, শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮, ৮ বৈশাখ ১৪২৫

আইপিএলে অভিষেকেই চমক যে ৫ তরুণের

http://news.zoombangla.com/আইপিএলে-অভিষেকেই-চমক-যে-৫/
April 17, 2018
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের শুরুর সপ্তাহটি ছিল বেশ নাটকীয়তায় ভরা। এই সাতদিনের মধ্যে এমন পাঁচ তরুণকে সবাই চিনলো বিশ্ব ক্রিকেটে এর আগে যাদের অনেকেই চিনতো না। মূলত ব্যাট কিংবা বল হাতে ঝড় তুলে আইপিএল পাড়ায় সবচেয়ে বেশিবার উচ্চারিত এই পাঁচ নাম।

গোনিউজ পাঠকদের জন্য সেই পাঁচ তরুণদের পরিচয় তুলে ধরা হলো

মায়াঙ্ক মার্কান্দ ২০ বছর বয়সী পাঞ্চাব লেগ স্পিনার মায়াঙ্ক মাত্র দুটি ম্যাচে সাত উইকেট তুলে সবার নজরে এসেছেন। চলতি আইপিএল উইকেট শিকারির শীর্ষে তার নাম। আইপিএলে চেন্নাইয়ের বিপক্ষে অভিষিক্ত ম্যাচে ধোনি-রাইডু ও দীপকের উইকেট তুলে বেশ আলোচনায় আসেন মায়াঙ্ক। পরের ম্যাচেও সেই ধারা অব্যাহত রাখেন। দ্বিতীয় ম্যাচে অরেঞ্জ আর্মিদের কমলা জার্সি বিষে নীল বানিয়ে দেন ভারতীয় এই তরুণ। ম্যাচটিতে চার চারটি উইকেট হাতিয়ে নেন মায়াঙ্ক।

আইপিএলে উইকেট শিকারির তালিকায় দ্বিতীয়তে মায়াঙ্ক। তার যাত্রা যে সুন্দর তা অনুমেয়। মায়াঙ্কের এমন কারিশমাটিক বোলিং দেখে ইতোমধ্যে স্বপ্ন দেখা শুরু করে দিয়েছে টিম ভারত।

সূর্য্য কুমার যাদব আইপিএল সিজন ইলেভেন ডিফেন্ডিং চ্যম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলছেন সূর্য্য কুমার যাদব। চলতি আসরে তিন ম্যাচে ১২৪ রান তুলেছেন তিনি। মূলত টপ অর্ডারে ভয় ডরহীন ব্যাটিংয়ের জন্য ইতোমধ্যে বেশ সুনাম কুড়াচ্ছেন যাদব। দলের টানা তিন পরাজয়ের মাঝেও অপ্রতিরোধ্য তার ব্যাট। সর্বশেষ ম্যাচে ৩২ বলে ৫৩ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন তিনি।

নীতিশ রানা

ইডেন গার্ডেনে বেঙ্গালুরু বিপক্ষে ম্যাচে আলোচনায আসেন কলকাতার উঠতি তারকা নীতিশ রানা। ম্যাচটিতে বেঙ্গালুরের গুরুত্বপূর্ণ মুর্হুতে এবি ডি ভিলিয়ার্স ও অধিনায়ক কোহলির উইকেট তুলে হিরো বনে যান তিনি। এছাড়াও ম্যাচটিতে ৩৪ রানের ইনিংস খেলেন রানা।

নীতিশ আলোচনায় অভিষিক্ত ম্যাচেই। ধীরে ধীরে ব্যাট হাতে সম্মৃদ্ধ হচ্ছেন নীতিশ যা তার স্কোর কার্ড লক্ষ্য করলেই বুঝা যাবে। আইপিএল প্রথম ম্যাচে ৩৪, পরবর্তীতে ১৬,১৮ ও ৫৯ হারে হার করেন নীতিশ।

দীপক হুদা ও শার্দূল কাউল

আইপিএল সিজন ইলেভেনে দুইজনই সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলছেন। একজন বল হাতে অন্যজন ব্যাট হাতে প্রতিপক্ষের মনে ভয়ে সঞ্চার সৃষ্টি করছেন। দীপক হুদা চলতি আসরে দুটি ম্যাচ খেলেছেন। যার একটিতে অর্থাৎ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে ম্যাচটিতে একার চেষ্টার এক উইকেটে জয় লাভ করে হায়দরাবাদ। ভারতের বারোদার হয়ে খেলে থাকেন হুদা।

অন্যদিকে বল হাতে দুর্বোধ্য কাউল। তার বল খেলাই মুশকিল প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের কাছে। চলতি আসরে ৩ ওভার বোলিং করে ৫ উইকেট শিকার করেছেন তিনি।-ক্রিক. ট্যা

66SHARESShareTweet

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ই-মেইল থেকে