ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৬

সমৃদ্ধ ও প্রভাবশালী দেশ হবে তুরস্ক

http://www.dhakatimes24.com/2018/06/25/86171/সমৃদ্ধ-ও-প্রভাবশালী-দেশ-হবে-তুরস্ক
BYআন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস

তুরস্কের নির্বাচনে গণতন্ত্র জয়ী হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তৃতীয়বারের মত ক্ষমতায় আসা এবং প্রথমবার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়লাভ করা রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান। এসময় বিশ্বের বুকে তুরস্ককে একটি উন্নয়ন, বিনিয়োগ ও সমৃদ্ধশালী, সম্মানজনক এবং প্রভাবশালী দেশ হিসেবে গড়ে তোলার অঙ্গিকার করেন এরদোয়ান।

নির্বাচনে বিপুল ব্যবধানে জয়ের পর সোমবার দেশটির রাজধানী আঙ্কারায় একে পার্টির প্রধান কার্যালয়ের বারান্দায় দাঁড়িয়ে লাখো সমর্থককে উদ্দেশ্য করে এরদোয়ান বলেন, তুরস্কের ৮১ মিলিয়ন নাগরিকই বিজয়ী হয়েছে।

তিনি বলেন, ২৪ জুনের নির্বাচনে গোটা তুর্কি জাতি এবং এই অঞ্চলের নির্যাতিত এবং বিশ্বের সব নিপীড়িত মানুষের জয় হয়েছে।

এছাড়া একে পার্টির নেতৃত্বাধীন জোট পিপলস অ্যালায়েন্সের অন্যতম দল এমএইচ পার্টির নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ জানান এরদোয়ান। তিনি বলেন, 'আমি আমার ভাই-বোনদের কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই। যারা আমার ওপর, আমাদের জোটের ওপর এবং আমার দলের ওপর বিশ্বাস স্থাপন করেছেন।'

নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের বিষয়ে দৃঢ়প্রত্যয় ব্যক্ত করে এরদোয়ান বলেন, 'কাল থেকেই শুরু হবে আমাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন। যেসব প্রতিশ্রুতি আমরা দিয়েছি। যার মাধ্যমে আমরা আমাদের জাতিগঠন করতে পারবো। আমরা আমাদের দেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতি বৃদ্ধি করব।'

এরদোয়ান বলেন, 'অবিলম্বে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। খুব দ্রুতই আমরা দেশের জাতীয় সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে তার দূর করতে কর্মসূচী বাস্তবায়ন শুরু করবো। একটি মুহূর্তও আমরা হারাতে চাই না।'

রবিবার তুরস্কে প্রথমবারের মত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিপুল ব্যবধানে জয় পেয়েছেন দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান। এছাড়া একইদিনে পার্লামেন্ট সদস্য নির্বাচনে এরদোগানের দল জাস্টিস এন্ড ডেভেলপমেন্ট (একে) পার্টির নেতৃত্বাধীন জোট সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে। এই নির্বাচনের পর প্রেসিডেন্ট পদ্ধতির সরকার ব্যবস্থা কার্যকরের মাধ্যমে নতুন যুগে প্রবেশ করবে তুরস্ক।

প্রেসিডেন্ট পদ্ধতি প্রবর্তনের পর প্রথম অনুষ্ঠিত হওয়া নির্বাচনে এরদোয়ান পেয়েছেন ৫৩ শতাংশ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মুহাররম ইনচে পেয়েছেন ৩১ শতাংশ ভোট। অন্য চার প্রার্থীর সবার প্রাপ্ত ভোট ৮ শতাংশের নিচে। নির্বাচনে কোনও প্রার্থী এককভাবে ৫০ শতাংশ ভোট না পেলে পরবর্তী ১৫ দিনের মধ্যে মুহাররম ইনচের সঙ্গে লড়াইয়ে নামতে হতো এরদোয়ানকে। তবে ৫৩ শতাংশ ভোট পাওয়ায় সরাসরি আবারও তুরস্কের ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হলেন তিনি।

এছাড়া পার্লামেন্ট নির্বাচনেও এরদোয়ানের একে পার্টির নেতৃত্বাধীন জোট সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে। ৯৭.৭ শতাংশ ভোট গণণা শেষে একে পার্টি জোটকে বিজয়ী ঘোষণা করেছে দেশটির নির্বাচন কাউন্সিল। বাকি ভোট না গুণলেও ফলাফলে কোনও প্রভাব পড়বে না বলে জানানো হয়েছে। সূত্র: আনাদুলু এজেন্সি।

ঢাকাটাইমস/২৫জুন/একে