ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ১ কার্তিক ১৪২৬

রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের পরিস্থিতি অনুকূল নয় : জাতিসংঘ

https://www.ntvbd.com/world/181543/রোহিঙ্গাদের-প্রত্যাবাসনের-পরিস্থিতি-অনুকূল-নয়-:-জাতিসংঘ
BYঅনলাইন ডেস্ক
১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৫:৩৯

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। ছবি : সংগৃহীত মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায়, সেখান থেকে সেনাবাহিনীর হামলা-নির্যাতনের মুখে বাস্তুচ্যুত হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের মাতৃভূমিতে ফিরে যাওয়ার প্রক্রিয়া নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ।

গতকাল মঙ্গলবার নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে উপস্থিত জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন জানিয়েছেন, এখনও বৌদ্ধ অধ্যুষিত রাখাইন রাজ্য থেকে রোহিঙ্গাদের আসা অব্যাহত আছে।

নিরাপত্তা পরিষদের আলোচনায় বক্তারা জানান, রোহিঙ্গা সংকট সমাধান মিয়ানমারকেই করতে হবে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা করে পাশে থাকার আশ্বাসও দিয়েছে নিরাপত্তা পরিষদ।

বৈঠকে জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) প্রধান ফিলিপ্পো গ্রান্ডি আম্মান থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দিয়ে বলেন, রাখাইন রাজ্যের পরিস্থিতি এখনো শরণার্থীদের ফিরে যাওয়ার জন্য অনুকূল নয়। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় সর্বোচ্চ ব্যবস্থাকে যথেষ্ট মনে করে ইউএনএইচসিআর।

জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত হু দু সুয়াং দাবি করেছেন, রাখাইনে কোনো গণকবরের সন্ধান পায়নি মিয়ানমার সরকারের তদন্তকারী দল।

বৈঠকের শেষ বক্তা ছিলেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন। তিনি জানান, এ মাসেও অত্যাচারের শিকার রোহিঙ্গারা রাখাইন থেকে পালিয়ে কক্সবাজারে এসেছে।

মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ‘মিয়ানমার যাই দাবি করুক না কেন, এখনও পর্যন্ত রোহিঙ্গাদের আগমন অব্যাহত আছে। সাম্প্রতিক জরিপ বলছে, রাখাইনের উত্তরাঞ্চল থেকে এই মাসেই এসেছে অন্তত দেড় হাজার রোহিঙ্গা। যারা ক্ষুধা, আগ্রাসন ও প্রতিকূলতার শিকার ছিলেন।’

মার্কিন প্রতিনিধি নিক্কি হ্যালে বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের সমস্যা সমাধানে যথাযথ উদ্যোগ নিতে ব্যর্থ হয়েছে নিরাপত্তা পরিষদ।’