ঢাকা, রবিবার, ২০ মে ২০১৮, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

প্রেমের নেশায় বুঁদ জগতের অন্যরকম চেহারা, মর্মান্তিক দৃশ্যে শিউরে উঠল নেট দুনিয়া

http://news.zoombangla.com/প্রেমের-নেশায়-বুঁদ-জগতের/
February 15, 2018
ঘটা করে পালিত হচ্ছে ভ্যালেন্টাইনস ডে। চারদিকে প্রেমের রমরমা। ভালবাসার এ মরশুমেও ভ্রুক্ষেপ নেই পাঁচ বছরের ছেলেটির। অকাতরে ঘুমিয়ে রয়েছে নিশ্চিন্তে। মায়ের পাশে শুয়ে রয়েছে যে। কিন্তু মায়ের শরীরে তো আর প্রাণ নেই। তা এখন কেবলমাত্র বরফশীতল নিথর দেহ। মর্মান্তিক এ দৃশ্য যেন বাস্তবের অন্য এক রূপ দেখিয়ে গেল প্রেমের নেশায় বুঁদ জগৎকে।

ঘটনা দিন দুয়েক আগের। শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছিল এক মহিলাকে। চিকিৎসকরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই মৃত্যু হয় মহিলার। নাম-পরিচয় পর্যন্ত জানার সময় পাওয়া যায়নি। সঙ্গে কেবল ছিল এই পাঁচ বছরের শিশুটি। সারাক্ষণ মায়ের পাশেই ছিল শিশুটি। মৃত্যুর পর রোগীকে শয্যায় ছেড়ে চলে যান চিকিৎসক ও তাঁর সহযোগীরা। মৃতদেহ সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য যখন ওয়ার্ডবয় ফিরে এসে ঘরে ঢুকেই চমকে ওঠেন। দেখেন, মৃত মায়ের নিথর দেহের পাশেই ঘুমিয়ে কাঁদা পাঁচ বছরের বালক।

এ দৃশ্য কে ক্যামেরাবন্দি করেছেন জানা নেই। তবে তা ভাইরাল হতে বেশি সময় লাগেনি। হেলপিং হ্যান্ড ফাউন্ডেশন নামে হায়দরাবাদের এক সংস্থা এ ছবি শেয়ার করে মহিলার পরিচয় জানার চেষ্টা করে। তাদের চেষ্টাতেই জানা যায়, ৩৫ বছরের ওই মহিলার নাম শামিনা সুলতানা। তিন বছর আগে তাঁর স্বামী আয়ুব তাঁকে পরিত্যাগ করে। এরপর থেকে পুত্রসন্তান নিয়ে একাই থাকতেন তিনি। বহু কষ্টে পুলিশের সাহায্য নিয়ে জাহিরাবাদে মহিলার এক আত্মীয়কে খুঁজে বের করা হয়। সদ্য মাতৃহারা শিশুটিকে তাঁর হাতেই তুলে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে শিশুটি এখনও এটাই বিশ্বাস করে বসে রয়েছে, মা হয়তো কোথাও কাজের জন্য গিয়েছে। খুব শিগগিরিই ফিরে আসবে, আর তাকে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে।

448SHARESShareTweet

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ই-মেইল থেকে