ঢাকা, বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭
BYআন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশ:  ২১ জুলাই ২০২১, ১৮:৫৪ | আপডেট : ২১ জুলাই ২০২১, ১৯:২৮

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন প্রায় চার হাজার মানুষ। দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, গত এক মাসে করোনায় সর্বোচ্চ সংখ্যক মৃত্যু দেখা গেছে ভারতে।

দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বুধবারের বুলেটিনে বলা হয়েছিল, মঙ্গলবার ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪৮৯ জন। কিন্তু পরে ওই দিনই দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্য বিভাগ জানানো হয়, মঙ্গলবার সেই রাজ্যে অতিরিক্ত ৩ হাজার ৫০৯ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে, যা সরকারি সরকারি হিসেবে আসেনি।

সম্পর্কিত খবর

    ফলে, মঙ্গলবার ভারতে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা পৌঁছায় ৩ হাজার ৯৯৮ জন। এছাড়া এই দিন মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্য বিভাগ আরও জানিয়েছে, মহামারি শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত সেই রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মোট ১ লাখ ৩০ হাজার ৭৫৩ জন।

    ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য না করা হলেও মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে অভিযোগ করেছেন, রাজ্য পর্যায়ে প্রশাসনিক ত্রুটির কারণে করোনায় মৃত্যু বিষয়ক প্রকৃত সংখ্যা কেন্দ্রে পৌঁছাচ্ছে না।

    ভারতে অবশ্য এমন ঘটনা এটিই প্রথম নয়। গত মাসেও দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য বিহারে এক দিনে ৫ হাজারেরও বেশি করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছিল এবং এই তথ্য সময়মতো কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে এসে পৌঁছায়নি।

    ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের হিসেব অনুযায়ী, মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪ লাখ ১৮ হাজার ৪৮০ জন। তবে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক মহামারি বিশেষজ্ঞরা বরাবরই দাবি করে আসছেন, সরকারি হিসেবের চেয়ে করোনায় ‍প্রকৃত মৃতের সংখ্যা দেশটিতে কয়েকগুণ বেশি।

    যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটনভিত্তিক গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর গ্লোবাল ডেভেলপমেন্ট মঙ্গলবার এক গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সেখানে দাবি করা হয়েছে, ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে এখন পর্যন্ত চলমান মহামারিতে ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন প্রায় ৪০ লাখ ৯০ হাজার মানুষ।

    পূর্বপশ্চিমবিডি/আর